khabor online most powerful bengali news

শীর্ষে প্রাক্তন সিএজি বিনোদ রাই, ক্রিকেট বোর্ডে চার প্রশাসক
নিয়োগ করল সুপ্রিম কোর্ট

নয়াদিল্লি: ৱিসিসিআই-এর প্রশাসক হিসেবে চার জনকে নিয়োগ করল শীর্ষ আদালত। প্রশাসক প্যানেলের শীর্ষে রয়েছেন প্রাক্তন কম্প্ট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল বিনোদ রাই। এছাড়াও আছেন ঐতিহাসিক রামচন্দ্র গুহ, ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক ডায়না এডুলজি এবং আইডিএফসি-র ম্যানেজিং ডিরেক্টর বিক্রম লিমায়ে।  বিসিসিআই-এর বর্তমান আধিকারিকদের মধ্যে যারা সুপ্রিম কোর্টের বেঁধে দেওয়া যোগ্যতামান উত্তীর্ণ হয়েছেন, তাঁদের মধ্যে থেকে তিনজনকে বাছাই করে প্রশাসক প্যানেলে যুক্ত করতে বোর্ডকে এদিন নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত। এদিন আদালতে বিসিসিআই জানায়, তাঁদের আধিকারিকরা  বোর্ডের দায়িত্ব পালনের জন্য কোনো অর্থ নেন না। তাই, আদালত-নিযুক্ত আধিকারিকদেরও কোনো বেতন দেবে না তাঁরা। কিন্তু এ কথা মানেনি শীর্ষ আদালত। কোর্টের নির্দেশ  এদের সবাইকে…

আরও পড়ুন

টেট পরীক্ষার্থীদের প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার

কলকাতা: টেট নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করবেন তিনি। এই আশ্বাস দিয়ে দুই দফায় টেট পরীক্ষার্থীদের থেকে ৭ লক্ষ ২০ হাজার টাকা নিয়েছিলেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার। কিন্তু দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও মামলা করেননি। বিধাননগর উত্তর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন অরূপরতন রায়। শনিবার সেই অভিযোগের ভিত্তিতে থানায় ডেকে জয়প্রকাশবাবুকে ৭ ঘণ্টা জেরা করে গ্রেফতার করল বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশ।  জয়প্রকাশ মজুমদারের বিরুদ্ধে প্রতারণা, হুমকি ও বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে। বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, এটা বিজেপি-কে বদনাম করার চেষ্টা। রোজভ্যালি কাণ্ডে তৃণমূল সাংসদরা গ্রেফতার হচ্ছেন বলেই প্রতিহিংসায় পুলিশকে কাজে লাগাচ্ছে তৃণমূল সরকার।  

আরও পড়ুন

সাহারা ডায়েরি কাণ্ডে মোদীর বিরুদ্ধে তদন্ত নয়: সুপ্রিম কোর্ট

নয়াদিল্লি: সাহারা ডায়েরি মামলায় যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ নেই। ওই ডায়েরিতে প্রধানমন্ত্রী বা অন্য যে সব নেতার নাম পাওয়া গেছে, তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করা যাবে না, জানিয়ে দিল শীর্ষ আদালত। নরেন্দ্র মোদী যখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, তখন তাঁকে ঘুষ দেওয়া হয়েছিল সাহারা ও বিড়লা গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে, এমন একটি অভিযোগ জানিয়ে তদন্তের আবেদন জানানো হয়েছিল শীর্ষ আদালতে। গত বছরের ১৪ নভেম্বর সেই আবেদন খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট। বুধবার ফের নতুন হলফনামা দাখিল করেন আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ। তিনি বলেন, সাহারা-বিড়লার ডায়েরি থেকে এটা প্রমাণ হয় না যে, মোদী ঘুষ খেয়েছেন। তাই একটি এফআইআর করে আদালতের তত্ত্বাবধানে তদন্ত হোক। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট…

আরও পড়ুন