khabor online most powerful bengali news

অন্দরসজ্জা: আলোর ঠিকানা ৩

মৈত্রী মজুমদার আধুনিক কালে অন্দর মহলের আলোক সজ্জায় মুড লাইটিং ব্যবহারের কথা আমরা আগেই আলোচনা করেছি। আর এই মুড বা ইনডাইরেক্ট আলোকসজ্জা সবচেয়ে জরুরি হল শোয়ার ঘরে। কারণ এই জায়গাটিতেই দিনের শেষে এসে আপনি বিশ্রাম নেবেন। আবার অবসরে আড্ডা মারবেন বা প্রয়োজনে পড়াশোনা করবেন। এই ঘরটির আশেপাশেই অনেকটা সময় কেটে যায় আপনার। তাই এই ঘরের আলোক সজ্জায় একটু বেশিই যত্নশীল হওয়া উচিৎ। আপনার শোয়ার ঘর হওয়া উচিৎ আপনার ব্যক্তিত্ব অনুযায়ী এবং সেই ভিন্নতাটা আসবে আলোকসজ্জার ওপর ভিত্তি করে। শোয়ার ঘর যদি সাবেকি ধরনে সাজাতে চান, তাহলে এর পুরো এলাকায় সমান আলোক বণ্টনের দিকে নজর দিতে হবে। ফলসসিলিং থাকলে এই কাজটি…

আরও পড়ুন

অন্দরসজ্জা : আলোর ঠিকানা ২

মৈত্রী মজুমদার আলো যেমন আশার প্রতীক সেভাবেই মানুষের মনন বা মানসিকতার ওপরও আলোর প্রভাব সংশয়াতীত। তাই অন্দরসজ্জার সময় আলোর ব্যবহার, সৌন্দর্যের সঙ্গে সঙ্গে ব্যবহারিক দিকটি মাথায় রেখেও করা দরকার। সারাদিন বিভিন্ন কাজের মাঝে যতটা মানসিক চাপের মধ্যে দিয়ে আজকাল আমাদের যেতে হয় তাতে বাড়ি ফেরার পর আমাদের দরকার শান্তি আর স্বস্তির পরিবেশ। আর এই পরিবেশ তৈরির ক্ষেত্রে আলোর ভুমিকাই সবচেয়ে বেশি। তাই আধুনিক সময়ে বাড়িঘর সাজাতে আলোর ব্যবহারের সময় মনে রাখতে হবে যে তথাকথিত সাদা আলোর টিউবলাইট, সিএফএল বা হলুদ আলোর সাধারণ বাল্ব ব্যবহার না করে, ইনডাইরেক্ট বা মুড লাইটিং ব্যবহার করাই শ্রেয়। আগের পর্বে আমরা আলোচনা করেছিলাম বাড়ির সদর দরজার…

আরও পড়ুন

অন্দরসজ্জা : আলোর ঠিকানা ১

মৈত্রী মজুমদার এ বছরের মতো পুজো শেষ, শেষ আলোর উৎসব দীপাবলিও। কিন্তু শেষ হলেও রয়ে গেছে তার রেশ। এটা অবশ্য নিয়ম করে প্রতি বছরই হয়। বা বলা ভালো, প্রকৃতির এটাই নিয়ম। বাংলা ক্যালেন্ডারে কার্তিক মাস। হেমন্তের হাতছানি গাছে গাছে। হাওয়ায় উত্তুরে হিমেল পরশ। শেষ রাতে হাল্কা চাদরের উষ্ণতা। আহা… বিছানা ছাড়তেই যেন আর মন চায় না। এ রকম দিনে সাঁঝের বেলায় দীপান্বিতার আলো, রোজ রোজ হলেই বা মন্দ কী? বারান্দায় দাঁড়িয়ে কফির কাপটা হাতে নিয়ে তাই ভাবছিলাম। ছোটবেলায় দীপাবলির মোমবাতিগুলো যত নিভতে থাকত, তত মনটা খারাপ হতে থাকত। এ যেন পুজোর ছুটির মেয়াদ শেষের বার্তাবাহক। আবার একটা বছরের অপেক্ষার পালা।…

আরও পড়ুন