khabor online most powerful bengali news

জয় দিয়ে অভিযান শুরুর লক্ষ্যে সুনীলরা

সানি চক্রবর্তী: হোক না প্রস্তুতি ম্যাচে জয়। তবু তো কম্বোডিয়াকে ৩-২ ব্যবধানে হারিয়ে ১২ বছর পরে দেশের বাইরে জয় পেয়েছে ভারতীয় দল। আর সেটাই স্টিফেন কনস্ট্যানটাইনের শিবিরে এনে দিয়েছে অক্সিজেনের সিলিন্ডার। এএফসি কাপের যোগ্যতাঅর্জন পর্বে গ্রুপের ম্যাচে মায়ানমারের বিরুদ্ধে নামার আগে যেটা বাড়তি আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে সুনীল-জেজেদের। এমনিতেই ভারতের (১৩২) থেকে ফিফা র‍্যাঙ্কিং-এ ৪০ ধাপ নীচে রয়েছে মায়ানমার। তাও প্রতিপক্ষের রাজধানী শহর ইয়াঙ্গনে লড়াইটা মোটেই ভারতের পক্ষে একতরফা হবে না। কারণ, নিকট অতীতে মায়ানমারের ট্র্যাকরেকর্ড বেশ ভালো। বেশ ভালো ফুটবলের নমুনা মেলে ধরছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশটি। পাশাপাশি হেড টু হেড বিচারে ভারত সামান্য এগিয়ে মায়ানমারের থেকে (১০-৯)। এ ছাড়া ইয়াঙ্গনে…

আরও পড়ুন

বারো বছরে প্রথম বার বিদেশে জয়, রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে কম্বোডিয়াকে হারাল ভারত

ভারত: ৩, কম্বোডিয়া: ২ নম পেন: ২০০৬-এ শেষ বার বিদেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচে জয় পেয়েছিল ভারত। বারো বছর পর ফের বিদেশের মাটিতে জয় এল। কম্বোডিয়াকে হারিয়ে দিল স্টিফেন কন্সট্যানটাইনের ভারত। খাতায় কলমে কম্বোডিয়ার থেকে অনেকটাই এগিয়ে ভারত। ফিফা র‍্যাঙ্কিং-এ ভারতের (১৩২) থেকে ৪১ ধাপ নীচে কম্বোডিয়া (১৭৩)। কিন্তু ম্যাচ জুড়ে সুনীলদের একটুও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে দেয়নি তারা। বরং প্রথমার্ধে কম্বোডিয়ার একের পর এক আক্রমণে বেশ চাপেই পড়ে গিয়েছিল ভারত। চাপে পড়ার অবশ্য যথেষ্ট কারণও ছিল। নম পেনের অলিম্পিক স্টেডিয়ামের কৃত্রিম টার্ফে খেলা যে সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে, ম্যাচের আগেই তা বলেছিলেন ভারতের কোচ। ম্যাচের ৩৫ মিনিটে সুনীল ছেত্রীর মাধ্যমে প্রথম…

আরও পড়ুন

পয়া কান্তিরাভাতেই ভাগ্যের চাকা ঘোরাতে মরিয়া মোহনবাগান

সানি চক্রবর্তী: ৩০ মে ২০১৫। কান্তিরাভা স্টেডিয়াম। বেঙ্গাল্লুরু এফসির বিরুদ্ধে ১-১ ড্র মোহনবাগানের। অতি মূল্যবান এক পয়েন্টে তেরো বছরের খরা কাটিয়ে ভারত সেরা মোহনবাগান। কাট টু ১১ মার্চ ২০১৬। হঠাৎ ফর্ম খুইয়ে ধুঁকতে থাকা মোহনবাগান মুখিয়ে লিগের লড়াইয়ে ঘুরে দাঁড়াতে। সামনে সেই বেঙ্গালুরু এফসি। মঞ্চ সেই কান্তিরাভা স্টেডিয়াম। গত দু’ বছরে মোহনবাগানের প্যান ইন্ডিয়ান কম্পিটিটর বেঙ্গালুরু এফসি। বর্তমানে একদমই ছন্দে নেই তারা। ১১ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট পেয়ে দাঁড়িয়ে লিগের পঞ্চম স্থানে। তবে সুনীল-লিংডো-বিনীতরা তাঁদের দিনে যথেষ্ট শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। সঞ্জয় সেনের মুখে শোনা গেল ঠিক সেই কথাই। তাঁর কথায় “বেঙ্গালুরু ছন্দে নেই এটা ঠিক, কিন্তু তারা যথেষ্ট ভালো দল, যে কোনো…

আরও পড়ুন

মুম্বই গাঁট টপকে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া মোহনবাগান

সানি চক্রবর্তী: রক্ষণ-রোগ কাটিয়ে ঘিুরে দাঁড়ানো। মুম্বই ম্যাচের প্রাক্কালে মোহনবাগান শিবিরের মন্ত্র এটাই। রক্ষণের ভুলে চার্চিল ম্যাচে দু’টো গেল হজম করার জেরে আই লিগের ন’ম্যাচের অপরাজিত তকমায় ছেদ পড়েছে। হারের ক্ষত দগদগে না হলেও রক্ষণের ভুলভ্রান্তিতে বেজায় চটে সঞ্জয় সেন। এডু-আনাসকে আলাদা করে নিয়ে বসে ভিডিও অ্যানালিসিসের ক্লাস থেকে অনুশীলনে হাতেকলমে শুধরে দেওয়া, কোনোটাই বাদ দেননি। বাগান-কোচ রক্ষণের ভুল নিয়ে কতটা চটে তা তাঁর কথাতেই পরিষ্কার। বলছিলেন, “শিক্ষানবিশের মতো গোল হজম করেছি আগের ম্যাচে। ভুলত্রুটিগুলো দ্রুত শোধরাতে হবে। একই ভুল করে গেলে খেতাব জেতা মুশকিল, সেটা মাথায় রেখেই এগোতে হবে।” টানা ম্যাচ খেলার ধকলে হালকা চোট রয়েছে এডু ও আনাস…

আরও পড়ুন

বিনোদনে ভরা ম্যাচ জিতে মাতিয়ে দিল সবুজমেরুন

মোহনবাগান-৩      আইজল এফসি-২ কলকাতা: নাটকে ভরা ম্যাচ জিতে ফের তিন পয়েন্টের রাজপথে পা ফেলল সঞ্জয় সেনের ছেলেরা। কোনো সন্দেহ নেই ভিনরাজ্যের দলটাই এদিন অনেকটা প্রাধান্য রেখে খেলল রবীন্দ্র সরোবরে। কিন্তু মোহনবাগান একে বড়ো টিম। তার উপর সময় মতো গোলগুলোও পেয়ে যেতে ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট হয়ে গেল কাতসুমিদের। খেলার 1 মিনিটে এবারের আই লিগের প্রথম গোলটা করে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ডাফি। বারবার আক্রমণ শানালেও কিংবা সুযোগ তৈরি করলেও অনেকক্ষণ গোলটা শোধ করতে পারেনি খালিদ জামিলের ছেলেরা। 41 মিনিটে ডিফেন্সের ফাঁক দিয়ে গোল করে সমতা ফেরালেন জয়েস রানে। তারপর ৬৩ মিনিট। মিজোরামের দলের বিরুদ্ধে জ্বলে ওঠেন তিনি কথা দিয়েছিলেন, কথা রাখলেন…

আরও পড়ুন

পিছিয়ে পড়েও প্রথম অ্যাওয়ে ম্যাচে জয় পেল সবুজমেরুন

   মোহনবাগান-২            চেন্নাই সিটি-১    (জেজে, সোনি)            (ট্যাঙ্ক) চেন্নাই: কয়েকটা মুহূর্ত বাদে কখনোই মনে হয়নি মোহনবাগান ম্যাচটা হারতে বা ড্র করতে পারে। কিন্তু ম্যাচের ৫২ মিনিটে গতির বিরুদ্ধে গোল করে দিলেন চেন্নাই সিটির ২৩ বছর বয়সি ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার ট্যাঙ্ক। প্রথমার্ধে যেভাবে ডিফেন্সে লোক বাড়িয়ে সবুজমেরুনকে রুখে দিয়েছিল অনভিজ্ঞ চেন্নাই সিটি, সেটা মনে করে নিশ্চয় রক্তচাপ বেড়ে গিয়েছিল বেঙ্গালুরু থেকে প্রিয় দলের খেলা দেখতে আসা ৭০-৭৫ জন সবুজমেরুন সমর্থকের। তবে চাপ নামতেও সময় লাগেনি। ৪ মিনিট পরেই ডাফির শটে ফ্লিক করে সমতা ফেরান জেজে। গত ম্যাচে দু’গোলের পর এদিন আবার। তারপরই…

আরও পড়ুন

ডাফি-জেজের জোড়া গোলে মিনার্ভাকে দুরমুশ করল সবুজ মেরুন

মোহনবাগান- ৪ মিনার্ভা পঞ্জাব-০ কলকাতা: আই লিগের মতো লম্বা দৌড়ে শুরুর দিকে টানা কয়েকটা ম্যাচ জিতে থাকা যে কতটা সুবিধার তা ভুক্তভোগী মাত্রই জানেন। কারণ দল সেট সকলেরই ৪-৫টি ম্যাচ লেগে যায়। সবুজ মেরুন কোচ সঞ্জয় সেন এবারে দেশের সেরা টিম পেয়েছেন। তার ওপর পরপর তিনটে ম্যাচে জিতে রইলেন। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত আই লিগে সোনার দৌড় চলছে বাগানের।  ডাফি আগের ম্যাচে ২ গোল করেছিলেন। এই ম্যাচে গোলের মধ্যে চলে এলেন চির ভরসার জেজে-ও। সোনি নামলেন। সুযোগের কাছাকাছি পৌঁছেও গেলেন কয়েকবার, কিন্তু পুরোপুরি ম্যাচ ফিট হতে এখনো একটু সময় লাগবে হাইতির স্ট্রাইকারের। যদিও তাঁর কর্নারে মাথা ছুঁয়েই প্রথম গোলটা পেলেন…

আরও পড়ুন

ইস্টবেঙ্গলে পরিবর্তনের প্রস্তুতি, মোহনবাগানে স্থিরতার

সানি চক্রবর্তী : লাল-হলুদের চতুর্থ বিদেশি হলেন স্ট্রাইকার ইল্ডার অ্যামিরভ। প্রায় গোটা দলই এখন হাতে এসেছে গিয়েছে দুই প্রধানের দুই কোচের। এ বার তাই ফের শুরু হচ্ছে নতুন করে ঘুঁটি সাজানোর প্রক্রিয়াটা। ইস্টবেঙ্গল শিবিরে যখন নতুন করে বোঝাপড়া ও সমীকরণ তৈরির ব্যস্ততা, উলটো দিকে তখন অনেকটাই স্থিরতা মোহনবাগান শিবিরে। সোমবার রাতেই এশিয়ান কোটার চতুর্থ বিদেশিকেও চূড়ান্ত করে ফেলল ইস্টবেঙ্গল। কিরগিজস্তানের স্ট্রাইকার ইল্ডার অ্যামিরভকে দলে নিল তারা। এখন দেখার ভিসা সমস্যার বেড়া টপকে কত তাড়াতাড়ি দলের সঙ্গে যোগ দেন তিনি। প্রথম ম্যাচে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় সে ভাবে সফল না হয়ে যখন নিজের শক্তিশালী অবস্থানে ফিরছেন ট্রেভর জেমস মরগ্যান, সঞ্জয় সেন তখন সেট দলে…

আরও পড়ুন

চার্চিলের থেকেও প্রত্যাশার পাহাড়ই বড়ো চ্যালেঞ্জ মোহনবাগানের

সানি চক্রবর্তী : প্রতিপক্ষ চার্চিল ব্রাদার্সে একঝাঁক চেনা মুখের সারি। মোহনবাগানে খেলে যাওয়া ব্রেন্ডন ফার্নান্ডেজ, রৌউলসন রডরিগেজ, ডেনজিল ফ্রাঙ্কো, ক্লিফোর্ড মিরান্ডা থেকে কলকাতা ময়দান থেকে প্রতিষ্ঠা পাওয়া প্রিয়ন্ত সিং, সুরাবুদ্দিনরা। নবগঠিত দলটি চার্চিল কর্তারা তৈরি করেছেন মাত্র পাঁচ দিনে, অনুশীলনের সময় পেয়েছেন দিন-সাতেক। তার মাঝেই বিদেশিহীন দলটি নামছে মোহনবাগানের বিরুদ্ধে। হ্যাঁ, প্রবল প্রতিপক্ষ মোহনবাগানের বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষের পরিচয় দিয়েই শুরু করতে হচ্ছে ম্যাচের পূর্বাভাস। চার্চিলের এ বারের বেশির ভাগ ফুটবলারের কাছেই লড়াইটা নিজেদের প্রমাণ করার। তাই রক্ষণাত্মক খোলসে মোহনবাগানকে রুখে দেওয়া ছাড়া বিশেষ পরিকল্পনা নিয়ে কলকাতায় আসেনি তারা। এমন অবস্থায় সবুজ-মেরুন শিবির প্রথম ম্যাচে আটকে গেলে, সেটাই হবে অঘটন। তাই সহজেই…

আরও পড়ুন

পিছিয়ে পড়েও ড্র, ডিফেন্স চিন্তায় রাখলেও মানতে নারাজ মোলিনা

আক্রমণাত্মক আতলেতিকো দে কলকাতা এবং রক্ষণাত্মক চেন্নাইয়ান এফ সি’র লড়াই শেষ পর্যন্ত অমীমাংসিতই রইল। রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামে ২-২ অবস্থায় শেষ হল ম্যাচ। প্রথমে দুরন্ত গোলে এগিয়ে যাওয়া, তার পর কয়েক মিনিটের ব্যবধানে ডিফেন্সের ভুলে দু’ দু’টো গোল হজম, ফের শেষ লগ্নে আক্রমণে চাপ বাড়িয়ে পেনাল্টি থেকে গোল তুলে নিয়ে ম্যাচ ড্র করা। চুম্বকে এটিকে-র এটাই প্রথম ম্যাচের পারফরম্যান্স। ম্যাচের সেরা হয়েছেন চেন্নাইয়ানের রাইট ব্যাক মেহরাজউদ্দিন ওয়াডু, ঠিক যে পজিশনে তিনি সামলেছিলেন হিউমকে। সঙ্গে ছিলেন ছটফটে পোস্তিগা। তবে ভিজে মাঠের প্রভাব বার বার পড়েছে হোসে মোলিনার দলের খেলায়। বিশেষ করে শেষ দিকে নামা ওয়ান বেলেনস্কো নড়াচড়াই করতে পারেননি সেভাবে। খেলার শুরুতে…

আরও পড়ুন