khabor online most powerful bengali news

মিনার্ভাকে চাপা দিয়ে লিগ শীর্ষে ইস্টবেঙ্গলের বিজয়রথ

সানি চক্রবর্তী : নাচতে জানলে উঠোনের দোহাই দেওয়ার দরকার হয় না। আর খেলতে জানলে মাঠের। গুরু নানক স্টেডিয়ামের বেহাল মাঠে যে ভাবে বিজয়রথ ছোটাল ইস্টবেঙ্গল, তাতে কথাগুলো বলতেই পারেন মরগ্যান। ভাঙা-গড়ার খেলার মধ্যে দিয়ে চলা মিনার্ভাকে তাদের মাঠে ৫-০ গোলে গুঁড়িয়ে দিল লাল-হলুদ শিবির। হ্যাটট্রিক করলেন ওয়েডসন আনসেলমে। গোলে ফিরলেন প্লাজা, পর পর দু’ম্যাচে গোল পেলেন রবীনও। সব মিলিয়ে প্রথম ম্যাচের হোঁচট পিছনে ফেলে পঞ্জাব থেকে অশ্বমেধের ঘোড়া হয়ে ওঠার ইঙ্গিতটা দিয়ে গেল ইস্টবেঙ্গল। রবিবারের জয়ের পরে গোলপার্থক্যে মোহনবাগানকে দ্বিতীয় স্থানে ঠেলে দিয়ে শীর্ষস্থানটাও দখল করে নিল মরগ্যানের দল। খেলার ৮ মিনিটের মাথায় এ দিন দলের হয়ে গোলের খাতা খোলেন…

আরও পড়ুন

মিনার্ভা ম্যাচে মরগ্যানের মাথাব্যথা মাঠ

সানি চক্রবর্তী : টানা তিন ম্যাচে জয়, আত্মবিশ্বাসে টগবগ করে ফুটছে ইস্টবেঙ্গল শিবির। অ্যাওয়ে ম্যাচে আই লিগে নতুন দল মিনার্ভার উপরে রোলার চালিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েই পঞ্জাবে গিয়েছ লাল-হলুদ ব্রিগেড। সেই লক্ষ্যে ম্যাচের আগের দিন গুরুনানক স্টেডিয়ামে অনুশীলন। আর সেখানেই হোঁচট। কারণ, খেলার মাঠ। কয়েক দিন আগে অনুষ্ঠানের জন্য যে মাঠ ব্যবহৃত হয়েছে। ফলে মাঠে একাধিক স্থানে রয়েছে গর্ত, পড়ে রয়েছে পেরেক। ম্যাচের দিনে মাঠ পরিষ্কার করা হলেও গর্ত বোজানোর পরে তা হয়ে থাকে অসমান। আর এ হেন মাঠে খেললে চোট-আঘাত লাগার সম্ভাবনা খুব বেশি থাকে। চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইয়ে দৌড় শুরু করা ইস্টবেঙ্গলের গতি, তাই প্রতিপক্ষ মিনার্ভা নয়, কমিয়ে দিয়েছে গুরু…

আরও পড়ুন

মরগ্যানের চিন্তা রক্ষণ নিয়ে, ভরসা বিদেশি আক্রমণ

  সানি চক্রবর্তী : আই লিগের মহাগুরুত্বপূর্ণ বেঙ্গালুরু বনাম ইস্টবেঙ্গল লড়াইয়ের আগের দিন। বারাসত বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে লাল-হলুদ শিবিরের মরশুমের প্রথম অনুশীলন। কিন্তু সেখানে গরহাজির অবিনাশ, রফিক, ডেভিড, জ্যাকিচাঁদের মতো একঝাঁক ফুটবলার। পরে অবশ্য এলেন রফিক। ঠিক কোন কারণে তাঁরা আসেননি জানা না গেলেও, কোচ মরগ্যান ম্যাচের আগে নিজের ভাবনায় থাকা ফুটবলারদের নিয়েই অনুশীলন করলেন খোঁজ পাওয়া গেল। বিকেলে ক্লাঁবতাঁবুতে হালকা মেজাজে মরগ্যান বললেন, “ডেভিড পারিবারিক কারণে বাড়ি গিয়েছে। জ্যাকিকে আমি বলতে ভুলে গিয়েছি, আর রফিক প্রথমে সেন্ট্রাল পার্কে চলে গিয়েছিল।” পুরো ব্যাপারটা হালকা ছলে ব্রিটিশ কোচ উড়িয়ে দিতে চাইলেও, গত বারের চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগের দিন এ রকম অপেশাদারিত্বের নজির!…

আরও পড়ুন

ওয়েডসন-প্লাজা যুগলবন্দিতে জয়ের রাজপথে ইস্টবেঙ্গল

সানি চক্রবর্তী : ডিএসকে শিবাজিয়ান্স ১ (গৌরমাঙ্গি)      ইস্টবেঙ্গল ২ (ওয়েডসন-পে, প্লাজা) একজন প্রথম ম্যাচেই নজর কেড়েছিলেন, ক্লান্ত শরীরেই ভরসা হয়ে ওঠার ইঙ্গিতটা দিয়েছিলেন। দ্বিতীয় ম্যাচেই যদিও দলের জয়সূচক গোলটা করে নিজের জাত চিনিয়ে দিলেন তিনি। আর এক জন নিজের পছন্দের পজিশনে খেলতে না পেরে সে ভাবে জ্বলে উঠতে পারেননি। নিজের পছন্দের রাইট উইংয়ে ফিরেই ক্রমাগত আক্রমণ শানিয়ে গেলেন বিপক্ষ ডিফেন্সে। পেনাল্টি থেকে দলের প্রথম গোলটাও তাঁরই। প্রথম জন উইলিস প্লাজা, আর দ্বিতীয় জন ওয়েডসন আনসেলমে। আক্রমণভাগে দুই তারকা যখন জ্বলে উঠলেন, রক্ষণে তেমনই ভরসা দিলেন ইভান বুকেনা। সব মিলিয়ে লাল-হলুদের বিদেশিদের ছন্দে ফেরার দিনে আই লিগের প্রথম তিন পয়েন্ট এল…

আরও পড়ুন

ইস্টবেঙ্গলে পরিবর্তনের প্রস্তুতি, মোহনবাগানে স্থিরতার

সানি চক্রবর্তী : লাল-হলুদের চতুর্থ বিদেশি হলেন স্ট্রাইকার ইল্ডার অ্যামিরভ। প্রায় গোটা দলই এখন হাতে এসেছে গিয়েছে দুই প্রধানের দুই কোচের। এ বার তাই ফের শুরু হচ্ছে নতুন করে ঘুঁটি সাজানোর প্রক্রিয়াটা। ইস্টবেঙ্গল শিবিরে যখন নতুন করে বোঝাপড়া ও সমীকরণ তৈরির ব্যস্ততা, উলটো দিকে তখন অনেকটাই স্থিরতা মোহনবাগান শিবিরে। সোমবার রাতেই এশিয়ান কোটার চতুর্থ বিদেশিকেও চূড়ান্ত করে ফেলল ইস্টবেঙ্গল। কিরগিজস্তানের স্ট্রাইকার ইল্ডার অ্যামিরভকে দলে নিল তারা। এখন দেখার ভিসা সমস্যার বেড়া টপকে কত তাড়াতাড়ি দলের সঙ্গে যোগ দেন তিনি। প্রথম ম্যাচে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় সে ভাবে সফল না হয়ে যখন নিজের শক্তিশালী অবস্থানে ফিরছেন ট্রেভর জেমস মরগ্যান, সঞ্জয় সেন তখন সেট দলে…

আরও পড়ুন

ছন্নছাড়া ফুটবলেও এক পয়েন্টে মুখরক্ষা ইস্টবেঙ্গলের

মাথায় হাত প্লাজার, কাছেই ম্যাচসেরা কিংসলে সানি চক্রবর্তী : ইস্টবেঙ্গল : ১ (বুকেনা) আইজল : ১ (কামু) শেষ ১০-১৫ মিনিট বাদ দিলে ছন্নছাড়া, দিশাহীন ফুটবলে আই লিগের অভিযান শুরু করল ইস্টবেঙ্গল। খালিদ জামিলের আইজল এফসি বরং ম্যাচের বেশির ভাগটায় দাপট দেখাল। আর ওয়েডসন, রৌলিনরা হয়ে রইলেন ভিন্ন গ্রহের বাসিন্দা। বারাসতে আই লিগের প্রথম ম্যাচে মিজোরামের দলটির সঙ্গে ১-১ করে লিগ অভিযান শুরু করল মরগ্যানের দল। কিন্তু তার দলের এ দিনের পারফরম্যান্স অনেক প্রশ্ন তুলে দিয়ে গেল। আলফ্রেড-কামুর মতো কলকাতা লিগে ছোটো দলের হয়ে খেলে যাওয়া বিদেশিদের আটকাতেই হিমসিম খেল লাল-হলুদের ডিফেন্স। মাঝমাঠে স্বদেশি তারকার ছড়াছড়ি সত্ত্বেও মরগ্যানের মাঝমাঠ দানা বাঁধল…

আরও পড়ুন