khabor online most powerful bengali news

ভারতের হারিয়ে যাওয়া চন্দ্রযানের খোঁজ পেল নাসা

ক্যালিফোর্নিয়া: ২০০৮ সালে বিশ্বের চতুর্থ দেশ হিসেবে চাঁদে নিজেদের মহাকাশযান পাঠিয়ে ইতিহাস গড়েছিল ভারত। যদিও কোনও মহাকাশচারী ছিলেন না তাতে। সব কিছু ভালোই চলছিল, নিয়মিত চাঁদ থেকে ছবি আর নানা তথ্য ভারতে পাঠাচ্ছিল চন্দ্রযান ১। হঠাৎই ২০০৯-এর আগস্টে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় চন্দ্রযান ১-এর সঙ্গে। দীর্ঘ আট বছর নিখোঁজ থাকার পর অবশেষে খোঁজ মিলল তার। এমনই দাবি করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।  গ্রাউন্ড রাডারের সাহায্যে নাসার বিজ্ঞানীরা খোঁজ পেলেন হারিয়ে যাওয়া চন্দ্রযান ১-এর। আয়তনে খুব ছোটো হওয়ায় চন্দ্রযান ১-এর খোঁজ পাওয়া বেশ কঠিন ছিল, জানিয়েছেন নাসার গবেষকরা। রাডার প্রযুক্তির সাহায্যে সাধারণত গ্রহাণুদের সন্ধান করা হয়। তবে চন্দ্রযানের অবস্থান পৃথিবী থেকে…

আরও পড়ুন

রেকর্ড গড়ল ইসরো, এক সঙ্গে ১০৪টি উপগ্রহ উৎক্ষেপণ

শ্রীহরিকোটা (অন্ধ্রপ্রদেশ): মঙ্গলবার ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকেই শুরু হয়েছিল কাউন্ট ডাউন।  শেষ পর্যন্ত স্বপ্ন সফল হল। পিএসএলভি রকেটে করে এক সঙ্গে মহাকাশে ছাড়া হল ১০৪টি কৃত্রিম উপগ্রহ। চেন্নাই থেকে ১২৫ কিলোমিটার দূরে শ্রীহরিকোটা থেকে বুধবার ঠিক সকাল ৯টা ২৮ মিনিটে উৎক্ষেপণ করা হল পিএসএলভি- সি৩৭ রকেট। মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘ইসরো’ এই খবর দিয়েছে। সেই সঙ্গে ভারতই প্রথম দেশ যারা এক সঙ্গে এতগুলো উপগ্রহ ছাড়ার কৃতিত্ব অর্জন করল। এখনও পর্যন্ত এক সঙ্গে ৩৭টি কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠানোর নজির রয়েছে। ২০১৪ সালে ছেড়েছিল রুশ মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। পিএসএলভি- সি৩৭ রকেটের এটি ৩৯তম মহাকাশ অভিযান। ১০৪টি উপগ্রহের মধ্যে তিনটি ভারতের, বাকি ১০১টি বিদেশি। ১০১টি…

আরও পড়ুন

এক সঙ্গে ১০৪টি কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠিয়ে ইতিহাস তৈরির পথে ইসরো

চেন্নাই: পিএসএলভি রকেটে করে এক সঙ্গে ছাড়া হবে ১০৪টি কৃত্রিম উপগ্রহ। একথা ভারতবাসী জেনেছে মাস খানেক আগেই। সেই থেকে দেশের বিজ্ঞানী মহলের সঙ্গে প্রতীক্ষায় আছে সাধারণ মানুষও। খুব শিগগির শেষ হচ্ছে অপেক্ষা। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘ইসরো’ থেকে ছাড়া হবে ১০৪টি উপগ্রহ। চেন্নাই থেকে ১২৫ কিলোমিটার দূরে শ্রীহরিকোটা থেকে ছাড়া হবে পিএসএলভি সি/৩৭ রকেট। ১৪ ফেব্রুয়ারি ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে কাউন্ট ডাউন। ইসরোর এই উদ্যোগ সফল হলে বিশ্বরেকর্ড করবে ভারত। এখনও পর্যন্ত রাশিয়ার গবেষণা সংস্থা থেকে ৩৭টি কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠানো হয়েছে একসঙ্গে। সেখানে ইসরো থেকে একসঙ্গে ১০৪টি উপগ্রহ পাঠানো হবে মহাকাশে। পিএসএলভি সি/৩৭-এর এটি…

আরও পড়ুন

৫০০ টাকা খরচ করলেই চাঁদের মাটিতে পৌঁছে যাবে নাম

বেঙ্গালুরু: ‘যদি হৃদয়ে লেখো নাম, সে নাম রয়ে যাবে’। হৃদয়ের পরিবর্তে চাঁদের বুকে নাম লেখার কথা তখন কল্পনাও করা যেত না। কিন্তু এখন যায়। আর কল্পনাকে বাস্তব করতেও উঠে পড়ে লেগেছে বেঙ্গালুরুর বেসরকারি সংস্থা টিমইন্ডাস। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসেই চাঁদের মাটিতে পা রাখার কথা টিমইন্ডাসের মহাকাশযানের। এটাই ভারতের প্রথম বেসরকারি চন্দ্র অভিযান। চাঁদ নিয়ে মানুষের আবেগ, গান, সাহিত্য, রহস্যের শেষ নেই। এ বার তার বুকেই পৌঁছে যেতে পারে আপনার নাম। মাত্র ৫০০ টাকা দিলেই আপনার নাম লেখা থাকবে ছোট্ট এক অ্যালুমিনিয়াম পাতে, যে পাত কিনা চন্দ্রযানে চেপে সরাসরি গিয়ে নামবে চাঁদের বুকে। আর চাঁদের বুকে সে নাম থেকে যাবে চিরকাল।…

আরও পড়ুন

ইতিহাস গড়া মঙ্গলযানের নেপথ্যে রয়েছেন তিন ভারতীয় মহিলা

বেঙ্গালুরু: ভারতের প্রথম এবং একমাত্র সফল মঙ্গল কক্ষপথ অভিযান ছিল ২০১৩ সালের ‘মার্স অরবাইটাল মিশন’ (মম)। মঙ্গলযান নামেই অবশ্য সারা দেশে বেশি জনপ্রিয় হয়েছিল অভিযান। তবে গৌরব গাঁথার আড়ালেই রয়ে গেছে অন্য এক ইতিহাস। সে ইতিহাস মঙ্গল অভিযানের দায়িত্বে থাকা তিন ভারতীয় মহিলার।  সাফল্যগুলো স্বীকৃতি পায়, নথিভুক্ত হয়। কিন্তু প্রায়শই সবার অলক্ষ্যে থেকে যায় সাফল্যের পেছনে থাকা মানুষগুলোর কথা। তেমনই তিন মহিলার কথা সামনে এল কিছুটা অপ্রত্যাশিত ভাবেই। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ‘মম’ অভিযানের প্রোজেক্ট ম্যানেজার নন্দিনী হরিনাথ জানিয়েছেন তাঁর অভিজ্ঞতার কথা।মঙ্গলযান তার পথ চলা শুরু করেছিল ২০১৩ সালের ৫ নভেম্বর।  মহাকাশযানটির যাত্রার প্রস্তুতিপর্ব থেকেই বিশেষ আবেগ জড়িয়ে ছিল নন্দিনীর। ইসরোর প্রোগ্রাম…

আরও পড়ুন

এক বারে ১০৩টি উপগ্রহ পাঠিয়ে বিশ্বরেকর্ড করবে ইসরো

তিরুপতি : পরবর্তী অভিযানে বিশ্বরেকর্ড করার আশা রাখছে ‘ইসরো’। এক সঙ্গে ১০৩টি উপগ্রহ কক্ষপথে পাঠানোর লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘ইসরো’। বুধবার তিরুপতিতে অনুষ্ঠিত ইন্ডিয়ান সায়েন্স কংগ্রেসের অধিবেশনে এ কথা জানায় সংস্থাটি। পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিক্যাল (পিএসএলভি)-র সাহায্যে এই উপগ্রহগুলি কক্ষপথে পাঠানো হবে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে। সংস্থার তরফে জানানো হয়, গত সপ্তাহ পর্যন্ত ঠিক ছিল পিএসএলভি-র সাহায্যে ৮৩টি উপগ্রহ মহাকাশে পাঠানো হবে। কিন্তু পরে ঠিক হয়, আরও কুড়িটি উপগ্রহ একই সঙ্গে মহাকাশে পাঠানো হবে। ১০৩টি উপগ্রহের মধ্যে তিনটি বড়ো আর একশোটি তুলনামূলক ভাবে ছোটো উপগ্রহ থাকবে। পিএসএলভি উৎক্ষেপণ করা হবে শ্রীহরিকোটা থেকে। প্রসঙ্গত, এতগুলো কৃত্রিম উপগ্রহ এক সঙ্গে এর…

আরও পড়ুন

প্রথম বেসরকারি চন্দ্র অভিযানের পথে ভারত

বেসরকারি উদ্যোগে প্রথম বার চাঁদে অভিযান চালাবে ভারত। না, চন্দ্রযানে থাকছে না কোনো মহাকাশচারী। বেঙ্গালুরুর একটি সংস্থা ‘টিমইন্ডাস’ ডিসেম্বরের শেষেই চাঁদে পাঠাতে চলেছে তাদের মহাকাশযান। আর এতে টিমইন্ডাসকে সাহায্য করছে দেশের সরকারি মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ইসরো। ওই সংস্থাকে মহাকাশযান পাঠানোর পিএসএলভি রকেট দেবে ইসরো। India’s Team Indus aims to be the first private company to land on the moonhttps://t.co/ht5Cc6bGft @DigitalReview_ pic.twitter.com/iZmDh5O7L4 — Salih SARIKAYA (@SalihSarikaya) December 2, 2016 আধিকারিক সূত্রে খবর, চন্দ্রযান-২ এর আগে চাঁদের মাটি এবং বাকি সব খুঁটিনাটি পরীক্ষা করে দেখার জন্যই এই উদ্যোগ। সেখানকার মাটিতে প্রায় ৫০০ মিটার চলার পরিকল্পনা রয়েছে টিমইন্ডাসের রোভারের। অত্যাধুনিক পদ্ধতিতে ছবি এবং…

আরও পড়ুন

এই প্রথম দু’টি ভিন্ন কক্ষপথে কৃত্রিম উপগ্রহ ছাড়ল ইসরো

মহাকাশ গবেষণার ক্ষেত্রে বড়সড় সাফল্য পেল ইসরো।এসক্যাটস্যাট-১ সহ একসঙ্গে ৮টি কৃত্রিম উপগ্রহকে মহাকাশে পাঠাল এই মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি। এই প্রথম এদের মধ্যে দুটি উপগ্রহকে ছাড়া হয়েছে ভিন্ন কক্ষপথে। সোমবার সকাল ৯টা ১২মিনিটে শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান কেন্দ্র থেকে মহাশূন্যে রওনা দেয় পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভিহিকল পিএসএলভি-সি৩৫। সেই যানে করেই মহাকাশে যাত্রা করে ৩৭১ কেজি ওজনের এসক্যাটস্যাট-১ সহ ৮টি নানা আকারের উপগ্রহ। ইসরো জানিয়েছে, সব মিলিয়ে ৬৭৫ কেজি ওজন নিয়ে মহাকাশে পাড়ি দিয়েছে পিএসএলভি-সি৩৫। এই উপগ্রহগুলির মধ্যে এসক্যাটস্যাট-১ সমুদ্র ও আবহাওয়া নিরীক্ষণের কাজে ব্যবহার হবে। বাকি ৭টি মধ্যে ৫টি বিভিন্ন দেশের। উৎক্ষেপণের ১৭ মিনিট পর পোলার সানসিনক্রোনাস অরবিটে মুক্তি পেয়েছে এসক্যাটস্যাট-১। শনিবার…

আরও পড়ুন