khabor online most powerful bengali news

তুষার ধসে ভূস্বর্গে মৃত ১০ জওয়ান, সতর্কতা জারি

জম্মু:  কাশ্মীরের গুরেজ এলাকায় জোড়া তুষার ধসে মৃত্যু হয়েছে ১০ সেনা জওয়ানের। বৃহস্পতিবার এক সেনা আধিকারিক এই তথ্য জানিয়েছেন সাংবাদিকদের। বুধবার সন্ধের দিকে বান্দিপোরা জেলার নিয়ন্ত্রণ রেখা সংলগ্ন অঞ্চলের এক সেনা ছাউনিতে তুষার ধসে আটকে পড়েন বহু জওয়ান। সাত জন নিহত জওয়ানের দেহ উদ্ধার হয় বুধবারের উদ্ধারকাজ শুরু হওয়ার পরেই। বাকি তিনটি দেহ উদ্ধার হয় বৃহস্পতিবার সকালে।   প্রধানমন্ত্রী ছারাও তুষার ধসে সেনা জওয়ানের মৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পারিকার। Deeply saddened at the death of our Veer jawans in an avalanche in Kashmir. Have directed the authorities for speedy search and rescue ops. — Narendra Modi (@narendramodi)…

আরও পড়ুন

♦ হিমাচলের দ্বিতীয় রাজধানী ধরমশালা

শিমলা: হিমাচল প্রদেশের দ্বিতীয় রাজধানী হল ধরমশালা। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বীরভদ্র সিং বৃহস্পতিবার এই ঘোষণা করে বলেন, যে কাজের জন্য মানুষকে রাজধানীতে যেতে হয়, সেই কাজ সারতে কাংড়া উপত্যকার মানুষদের আর শিমলা ছুটতে হবে না। ধরমশালার নিজস্ব গুরুত্ব ও ইতিহাস আছে। রাজধানী হওয়ার ব্যাপারে তার যথেষ্ট যোগ্যতা আছে। বীরভদ্র বলেন, চাম্বা, হামিরপুর, কাংড়া ও উনা জেলার মানুষদের কাছে ধৌলাধার পর্বতমালায় অবস্থিত এই ধরমশালা শহরের খুবই গুরুত্ব আছে। তা ছাড়া তিব্বতি ধর্মগুরু দলাই লামার আবাসস্থল এবং নির্বাসিত তিব্বতি সরকারের রাজধানী হওয়ায় ধরমশালার আন্তর্জাতিক গুরুত্বও রয়েছে। বিজেপি রাজ্য সরকারের এই ঘোষণাকে ভোটের আগে কাংড়া উপত্যকার মানুষদের তুষ্ট করার চাল বলে বর্ণনা করেছে। উল্লেখ্য,…

আরও পড়ুন

অন্য হিমাচলের আনাচে কানাচে

বেশ কদিন ধরেই খবরের কাগজ, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলো ভরে যাচ্ছে বরফে ঢাকা সিমলা আর মানালির ছবিতে। সেই ছবি দেখে শীতের আমেজটুকুতে মজে আছি আমরা সবাই। ঠিক এই সময় পাওয়া গেল অঙ্কিতকে। অঙ্কিত পেশায় ইঞ্জিনিয়ার। আর নেশায় ফটোগ্রাফার। বরফে ঢাকা হিমাচলের ছবি তো অনেক হল, এ বার একটু অন্য সময়ের ছবি। অঙ্কিত গুপ্তার ক্যামেরায় বন্দি থাকা একগুচ্ছ ছবির মধ্যে বেছে নিলাম হিমাচল প্রদেশের কয়েকটা।                                               স্পিতি উপত্যকার মুধ গ্রাম থেকে তোলা                  …

আরও পড়ুন

বিমুদ্রাকরণ নিয়ে মোদী-রাহুল তরজা অব্যাহত

মুম্বই ও ধরমশালা : প্রায় প্রতি দিনের রোজনামচা মোদী-রাহুল তরজা। একে অপরের দিকে গোলা বর্ষণ করেই চলেছেন। শনিবার হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালা থেকে তোপ দাগলেন রাহুল। উল্টো দিকে এ দিনই মুম্বইয়ের রায়গড় থেকে রাহুলের উদ্দেশে পাল্টা গোলা ছুড়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সিকিউরিটি মার্কেটের নতুন একটি ক্যাম্পাস উদ্বোধনে এসে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী। তাতেই নোট বাতিল সিদ্ধান্ত নিয়ে নরেন্দ্র মোদী বলেন, দেশের মঙ্গলের জন্য এমন সিদ্ধান্ত।  এক প্রজন্মের মধ্যেই দেশকে উন্নত করার লক্ষ্যে এই পদক্ষেপ। তিনি বলেন, এই সিদ্ধান্তের সুফল পাওয়া যাবে একটা সময় পরে। ভারতের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কথা ভেবে এই সিদ্ধান্ত। রাজনীতির স্বার্থে ছোটোখাটো পদক্ষেপে নাম কেনার চেষ্টা কখনোই…

আরও পড়ুন

আইটিবিপি জওয়ানের দৃষ্টান্ত দিয়ে স্বচ্ছ ভারত গড়ার ডাক মোদীর

দেশের সেনা জওয়ানদের কাজ শুধু দেশের জন্য প্রাণ দেওয়াই নয়। আসলে দেশবাসীর সেবা করাই তাঁদের মূলমন্ত্র। সেই সেবাকাজ নানাভাবে করা যেতে পারে। যেমন করেছেন ইন্দো-তিব্বত সীমান্ত পুলিশের (আইটিবিপি) জওয়ান বিকাশ ঠাকুর। তিনি হিমাচল প্রদেশে তাঁর গ্রামে প্রত্যেক বাড়িতে শৌচালয় বানানোর জন্য ৫৭ হাজার টাকা গ্রাম পঞ্চায়েতের হাতে তুলে দিয়েছেন। বিকাশ ঠাকুরের দৃষ্টান্ত দিয়ে রবিবার ২৫তম ‘মন কি বাত’ বেতারভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশবাসীকে স্বচ্ছ ভারত গড়ার ডাক দিলেন।   প্রধানমন্ত্রী জানান, হিমাচল প্রদেশের সিঙ্গুর জেলার ভাঘানা গ্রামের বিকাশ ঠাকুর। ছুটিতে গ্রামে ফিরে বিকাশ লক্ষ করে সেখানে প্রতি ঘরে শৌচালয় বানানোর জন্য পঞ্চায়েত সভায় আলোচনা চলছে। কিন্তু গ্রামে এমন বহু ঘর…

আরও পড়ুন

চন্দ্রভাগা-৯ পর্বতশীর্ষে আরোহণ হৈমবত ফাউন্ডেশনের

হিমাচল প্রদেশের লাহুল-স্পিতি অঞ্চলে চন্দ্রভাগা-৯ পর্বতশীর্ষে আরোহণ করে ফিরে এসেছে হৈমবত অ্যাডভেঞ্চার ফাউন্ডেশন। ৯ সদস্যের পর্বতারোহী দলের নেতৃত্বে ছিলেন সুব্রত চক্রবর্তী। ৬১০৮ মিটার উঁচু চন্দ্রভাগা-৯-এ আরোহণ করার জন্য পর্বতারোহী দলটি বেস ক্যাম্প করে বড়ালাচালা অঞ্চলে, ৪৬৪৮ মিটার উচ্চতায়। প্রতিকূল আবহাওয়া ও অন্যান্য বাধা ঠেলে দু’ দিন পরে ৫২৩০ মিটার উচ্চতায় গ্লেসিয়ার ক্যাম্প স্থাপন করা হয়। ৬০ মিটার উঁচু খাড়া পাথুরে দেওয়াল-সহ আরও কিছু বাধা কারিগরি দক্ষতার সাহায্যে টপকে দলটি পরের দিন সামিট ক্যাম্প স্থাপন করে ৫৪৯০ মিটার উচ্চতায়। ৫ জন পর্বতারোহী সামিট ক্যাম্পে থেকে যান। কোনও রকম জল না থাকায় বরফ গলিয়ে তৃষ্ণা মেটাতে হয়। রাত ১-২০ মিনিটে চূড়ান্ত আরোহণ…

আরও পড়ুন

হিমাচলে ভারী বৃষ্টিতে ভেঙে পড়ল ৪৪ বছরের পুরোনো ব্রিজ, ধরা পড়ল ক্যামেরায়

জলের তোড়ে হিমাচল প্রদেশে ভেঙে পড়ল ৪৪ বছরের পুরোনো ব্রিজ। কাংড়া জেলায় এই ব্রিজ ভেঙে পড়ার দৃশ্যটি মোবাইল ক্যামেরা বন্দি করেছেন এক গ্রামবাসী। তাতে দেখা যাচ্ছে, প্রবল জলের তোড়ে ১৬০ মিটার লম্বা ব্রিজটি তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েছে। প্রতিবেশী পঞ্জাবের সঙ্গে হিমাচল প্রদেশের নূরপূর এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রামের সঙ্গে সংযোগ রক্ষা করে এই ব্রিজটি। এই ঘটনায় কেউ আহত হননি। তার কারণ, ব্রিজটিতে ফাইল দেখা দিতে তার উপর দিয়ে যান-চলাচল বন্ধ করে দেয় প্রশাসন। ফলে বড়সড় দুর্ঘটনা এড়ানো গিয়েছে। ১০ দিন আগেই মুম্বই-গোয়া সড়কের উপর ব্রিটিশ আমলে তৈরি একটি ব্রিজ প্রবল বর্ষণের সময় ভেঙে পড়ে। যাত্রী সহ একটি বাস জলে পড়ে…

আরও পড়ুন