Search

রবিনের জোড়া গোল, দুরন্ত ওয়েডসন, জয়ে ফিরল লালহলুদ

রবিনের জোড়া গোল, দুরন্ত ওয়েডসন, জয়ে ফিরল লালহলুদ
ইস্টবেঙ্গল ৩(ওয়েডসন,রবিন ২) – বেঙ্গালুরু এফসি ১ (সি কে বিনীত) বেঙ্গালুরু: একটা দল টানা অপরাজিত থাকার তকমা হারিয়েছে গত ম্যাচে। আরেক দল গতবারের চ্যাম্পিয়ন, কিন্তু গত ছ’টা ম্যাচ জয়ের মুখ দেখেনি। ইস্টবেঙ্গল কেবলমাত্র আইজলের কাছে হারলেও জয় পায়নি তার আগের দু’ম্যাচেও। লিগ শীর্ষে থাকলেও তাই বেশ চাপ নিয়েই নেমেছিল মরগ্যানের ছেলেরা। অন্যদিকে ঘরের মাটিতে সুনীল ছেত্রীদের সব ম্যাচই ডু অর... আরও পড়ুন

অপরাজিত তকমা খুইয়ে আইজল থেকে ফিরছে ইস্টবেঙ্গল

অপরাজিত তকমা খুইয়ে আইজল থেকে ফিরছে ইস্টবেঙ্গল
আইজল এফসি-১ (রালতে) ইস্টবেঙ্গল – ০ আইজল: কয়েকটা টুকরো তথ্য। এক : আই লিগের ইতিহাসে এই প্রথম ইস্টবেঙ্গলকে হারাল আইজল এফসি।  দুই :  এ বারের আই লিগে ঘরের মাটিতে এখনও পর্যন্ত অপরাজিত আইজল। তিন: ৭ জানুয়ারি, ইস্টবেঙ্গল আই লিগ অভিযান শুরু করেছিল ঘরের মাটিতে আইজল এফসি-র সঙ্গে খেলে। সেই ম্যাচে ৮৮ মিনিট পর্যন্ত এগিয়ে থেকেও তিন পয়েন্ট নিয়ে ফিরতে পারেনি খালিদ... আরও পড়ুন

শীর্ষে থাকলেও টানা দ্বিতীয় ড্র’য়ে চিন্তা বাড়ছে ইস্টবেঙ্গল শিবিরে

শীর্ষে থাকলেও টানা দ্বিতীয় ড্র’য়ে চিন্তা বাড়ছে ইস্টবেঙ্গল শিবিরে
সানি চক্রবর্তী: লক্ষ্য ছিল ৬, এল মাত্র ২। তা-ও খুব একটা আপাত ক্ষতি হল না প্রতিপক্ষদেরও ড্র’র ছটায়। আই লিগে বুধবারের চারটি ম্যাচই অমীমাংসিত রইল। ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা লাজংয়ের কাছে ফের আটকে কিছুটা চিন্তায় পড়লেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগানও ড্র করায় চাপমুক্ত হলেন। পাশাপাশি লিগের তিন ও পাঁচে থাকা আইজল-বেঙ্গালুরু ম্যাচ ড্র হওয়ায় প্রথম পর্বের শেষে শীর্ষে থাকার সম্ভাবনাটাই জোরালো হল। আপাতত ৯... আরও পড়ুন

লাজং গাঁট কাটাতে মরগ্যানের পরিকল্পনায় আজ চার বিদেশি

লাজং গাঁট কাটাতে মরগ্যানের পরিকল্পনায় আজ চার বিদেশি
সানি চক্রবর্তী: ডার্বি ম্যাচ এখন ইতিহাস। আপাতত লাল-হলুদ শিবিরের নজরে ফের জয়ের রাজপথে ফেরা। আই লিগের প্রথম পর্বের শেষে লিগের শীর্ষস্থানটা ধরে রাখাই এখন চ্যালেঞ্জ তাদের কাছে। ৮ ম্যাচে ২০ পয়েন্ট নিয়ে লিগশীর্ষে থাকা ইস্টবেঙ্গল শিবিরকে তাই নতুন উদ্যমে শিলং লাজং ম্যাচের আগে তাতাতে ব্যস্ত মরগ্যান। শিলিগুড়ির কাঞ্জনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে ইস্টবেঙ্গলের হোম ম্যাচ হলেও পাহাড়ি দলটি পরিবেশগত একটা সাহায্য পাবে। তার... আরও পড়ুন

পেশাদারিত্বের নিষ্ফলা হিসেবনিকেশে আবেগের আঁকিবুকি সনি-ওয়েডসনের

পেশাদারিত্বের নিষ্ফলা হিসেবনিকেশে আবেগের আঁকিবুকি সনি-ওয়েডসনের
সানি চক্রবর্তী: হিসেব-নিকেশ কষা ট্যাকটিক্যাল ফুটবল, প্রতিপক্ষকে বিপজ্জনক হতে দেখলেই কড়া ট্যাকেল। অসমান মাঠের পাশাপাশি অতিরিক্ত সাবধানী ফুটবল। সব কিছুর নিট ফল আবেগের বিস্ফোরণটা মাঠের বাইরে হলেও কাঞ্জনজঙ্ঘায় দুই প্রধান উপহার দিল ম্যাড়ম্যাড়ে ফুটবল। তবে আবেগের খাতায় কিন্তু নাম তুলে গেলেন দুই প্রধানের সেরা দুই তুরুপের তাস। সনি চোট নিয়েও খেলে গেলেন, আর সমর্থকদের জন্য তার হৃদয় যে কাঁদে বুঝিয়ে... আরও পড়ুন

গোলশূন্য ড্রয়ের শিলিগুড়িতে খলনায়ক মাঠই

গোলশূন্য ড্রয়ের শিলিগুড়িতে খলনায়ক মাঠই
শিলিগুড়ি: ৭৫ মিনিটের মাথায় জেজে-কে তুলে বলবন্তকে নামালেন সঞ্জয় সেন। উপায় ছিল না। পুরোটাই নিষ্প্রভ ছিলেন জেজে। কিন্তু ৪৩ মিনিটের মাথায় যদি গোলের সামনে থেকে শটটা নিতে পারতেন তিনি। তাহলে হয়তো এদিনের নায়ক হিসেবে তাঁর নামই লেখা হতো। কিন্তু পারেননি, কারণ মাঠের অসমান বাউন্স। পুরো ম্যাচ জুড়ে বারবার বল ধরতে অসুবিধায় পড়েছেন খেলোয়াড়রা। দৌড়তে দৌড়তে পড়ে গেছেন। কারণ ওই মাঠ।... আরও পড়ুন

আবেগের তীব্র লড়াইয়ে টেক্কা দিয়ে পেশাদারিত্বের সিঁড়িতে এগিয়ে চলার মহারণ

আবেগের তীব্র লড়াইয়ে টেক্কা দিয়ে পেশাদারিত্বের সিঁড়িতে এগিয়ে চলার মহারণ
সানি চক্রবর্তী: লাল-হলুদ দ্বীপে যেন উঁকি-ঝুঁকি মারছে সবুজ-মেরুন কিছু ক্ষেত্র। শিলিগুড়ির বর্তমান অবস্থা যেন এমনটাই। একটা তথ্য তুলে দিলে ব্যাপারটা বুঝতে সুবিধা হবে। উত্তরবঙ্গের গুরুত্বপূর্ণ শহরে এখন ইলিশের দর ৩ হাজার, আর চিংড়ির ৫৫০। মাঠের বাইরের আবহে, স্মৃতিতে কিছুটা ব্যাকফুটে থাকলেও মাঠের লড়াইয়ে সেয়ানে-সেয়ানে টক্করে রয়েছে মোহনবাগান। আর মরগ্যান ব্রিগেডের আত্মবিশ্বাস যে আকাশচুম্বী, তা আর নতুন করে বলে দিতে হবে... আরও পড়ুন

ডার্বির ব্যাপারে ওয়াকিবহাল, বললেন ইস্টবেঙ্গলের চতুর্থ বিদেশি পায়েন

ডার্বির ব্যাপারে ওয়াকিবহাল, বললেন ইস্টবেঙ্গলের চতুর্থ বিদেশি পায়েন
কলকাতা: সবে পা রেখেছেন শহরে, কিন্তু ইতিমধ্যেই ইউ টিউবে দেখে নিয়েছেন ডার্বির ভিডিও। সমর্থকদের উত্তেজনার ব্যাপারেও ওয়াকিবহাল। কলকাতায় পা রেখে এমনই জানালেন ইস্টবেঙ্গলের নতুন বিদেশি ক্রিস্টোফার পায়েন। শনিবার ইস্টবেঙ্গল শিবিরে সই করেন এই মরশুমে তাঁদের চতুর্থ বিদেশি পায়েন। রবিবার সকালেই পাড়ি দেবেন শিলিগুড়ি, ডার্বি ম্যাচ সরাসরি চাক্ষুষ করার জন্য। তবে শিলিগুড়ি রওনা হওয়ার আগে জানালেন, কোচ যদি তাঁকে খেলাতে চান... আরও পড়ুন

ডার্বি-ডঙ্কা: বড়ো লড়াইয়ে ছোটো যুদ্ধগুলো

ডার্বি-ডঙ্কা: বড়ো লড়াইয়ে ছোটো যুদ্ধগুলো
সানি চক্রবর্তী: সনি নরডি বনাম রবিন গুরুং নিঃসন্দেহে মোহনবাগান আক্রমণের প্রাণভোমরা। ফাঁকা জায়গা পেলেই ভয়ংকর এই হাইতিয়ান। তাঁর বাম প্রান্তিক দৌড় শুরু করে ভিতরে ঢুকে আসা আটকানোর উপরে অনেকাংশে নির্ভর করবে বাগান আক্রমণকে আটকানো। গত চেন্নাই ম্যাচে রাহুল ভেকের পরিবর্তে নেমে রবিন গুরুং যে ফুটবল খেলে দেখিয়েছেন, তাতে প্রথম একাদশে সনির বিরুদ্ধে তিনি না নামলেই অবাক হতে হবে। পাশাপাশি সনির... আরও পড়ুন

সাবধানী মরগ্যান, আক্রমণাত্মক সঞ্জয়

সাবধানী মরগ্যান, আক্রমণাত্মক সঞ্জয়
সানি চক্রবর্তী : ইস্টবেঙ্গল কিছুটা হলেও ভালো খেলছে। তবে কাউকে এগিয়ে পিছিয়ে রাখছি না। কলকাতায় দলের অনুশীলনের পরে এ ভাবেই রক্ষণাত্মক ছিলেন সঞ্জয়। তবে শিলিগুড়ির ডার্বির আবহে পা দিয়েই ফ্রন্টফুটে তিনি। আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে জানিয়ে দিলেন, “রবিবার পরিষ্কার করে দেব কারা এগিয়ে কারা পিছিয়ে। ইস্টবেঙ্গল ভালো খেলছে বলার মানে তাদের এগিয়ে রাখছি যাঁরা ভাবছেন, তাঁরা বাংলাটা বোঝেন কি  না সন্দেহ আছে।”... আরও পড়ুন