khabor online most powerful bengali news

পুজো শেষে বিশ্রাম নিতে মা দুগ্গা এখন রংধামালিতে

ভক্তদের টানে এখনো কৈলাসে ফিরতে পারেননি মা দুর্গা। রয়ে গেছেন মর্ত্যেই। তাই বিসর্জনের পরেও এখনও বিভিন্ন তিথিতে বিভিন্ন জায়গায় ফিরে আসছেন তিনি।  জলপাইগুড়ির রংধামালিতে বৃহস্পতিবার ধুমধাম করে হল দশভুজার আরাধনা। প্রায় ১৩৫ বছর ধরে এখানে এই পুজো হয়ে আসছে। পুজো হয় লক্ষীপুজোর ৫ দিন পর।   স্থানীয় লোককথা অনুযায়ী,  মর্ত্যে পুজো শেষে সপরিবারে কৈলাসে ফিরছিলেন মা দুর্গা। তখন রংধামালির এই এলাকার একটি বাগানে বিশ্রাম নিতে বসে পড়েন তিনি। জানতে পেরে বাগানের মালিক ও স্থানীয় বাসিন্দারা খবর পেয়ে সেখানে ছুটে আসেন। নানাভাবে সেবা করেন দুর্গা মা ও তার সন্তান-সন্ততিদের।  তাকে সপরিবারে এখানে একদিন থেকে যাওয়ার অনুরোধ করেন গ্রামবাসীরা। তাতে রাজি হন দেবী।…

আরও পড়ুন

কেঁন্দাশোলে হুদুর দুর্গা (মহিষাসুর) স্মরণ দিবসে তাহাদের কথা

অচিন পাখিরা দুর্গোৎসবের ছুটি কাটাতে পাহাড় আর জঙ্গলের মধ্যে অনেকেই বেছে নেন জঙ্গল। আর জঙ্গল মানেই তো শাল–মহুলের বন আর আদিবাসী। আর ভ্রমণপিপাসুরা যখন গাছগাছালি ঘেরা ছোটো ছোটো বাংলো, হলিডে হোমে সকালবেলায় আকাশে শরতের মেঘের আনাগোনা উপভোগ করেন, তখনই তাদের আবির্ভাব ঘটে।  হ্যাঁ, ওদের কথাই বলছি । ওরা মানে সাঁওতাল, মুন্ডা, ওরাওঁ প্রভৃতি আদিবাসী যুবকেরা ষষ্ঠী থেকে দশমী পর্যন্ত বীরাঙ্গনা নারীর মতো শাড়ি পরে সেরেঞ বা ভূযাং হাতে দলবদ্ধ ভাবে নাচতে নাচতে চলে যায় তখন কি একবারও ভেবে দেখেন এই নাচটার নাম কী ?  যদি বা জানলেন নাচটার নাম দাঁশাই নাচ, কিন্তু জেনেছেন কি কেনই বা ছেলেরা মেয়েদের শাড়ি পরে…

আরও পড়ুন

কেঁন্দাশোলে হুদুর দুর্গা (মহিষাসুর) স্মরণ দিবসে তাহাদের কথা

অচিন পাখিরা দুর্গোৎসবের ছুটি কাটাতে পাহাড় আর জঙ্গলের মধ্যে অনেকেই বেছে নেন জঙ্গল। আর জঙ্গল মানেই তো শাল–মহুলের বন আর আদিবাসী। আর ভ্রমণপিপাসুরা যখন গাছগাছালি ঘেরা ছোটো ছোটো বাংলো, হলিডে হোমে সকালবেলায় আকাশে শরতের মেঘের আনাগোনা উপভোগ করেন, তখনই তাদের আবির্ভাব ঘটে।  হ্যাঁ, ওদের কথাই বলছি । ওরা মানে সাঁওতাল, মুন্ডা, ওরাওঁ প্রভৃতি আদিবাসী যুবকেরা ষষ্ঠী থেকে দশমী পর্যন্ত বীরাঙ্গনা নারীর মতো শাড়ি পরে সেরেঞ বা ভূযাং হাতে দলবদ্ধ ভাবে নাচতে নাচতে চলে যায় তখন কি একবারও ভেবে দেখেন এই নাচটার নাম কী ?  যদি বা জানলেন নাচটার নাম দাঁশাই নাচ, কিন্তু জেনেছেন কি কেনই বা ছেলেরা মেয়েদের শাড়ি পরে…

আরও পড়ুন

মানসিক ভারসাম্যহীনদের ঠাকুর দেখিয়ে আনলেন মোসলেম মুন্সি

পুজোর নতুন জামা কাপড় পরা থেকে বঞ্চিত হননি তাঁরা। বঞ্চিত হলেন না ঠাকুর দেখা থেকেও। সৌজন্যে মোসলেম মুন্সি। নদিয়া জেলা পুলিশের সহযোগিতায় বাষট্টি জন পুরুষ ও মহিলা মানসিক ভারসাম্যহীন রোগীকে দুর্গা দর্শন করিয়ে আনলেন ‘পাগলদের’ অলিখিত অভিভাবক মোসলেম মুন্সি। রাস্তার ভবঘুরে পাগলকে ধরে এনে সুস্থ করাই যাঁর ব্রত সেই মোসলেম মহানবমীর দিন নদিয়া জেলা পুলিশের দু’টি প্রিজন ভ্যানে মানসিক ভারসাম্যহীনদের চাপিয়ে জেলার বিভিন্ন প্রান্তের দুর্গা প্রতিমা দর্শন করানোর বন্দোবস্ত করলেন। বছর ২২-২৩ আগে বেথুয়াডহরি বাসস্ট্যান্ডে একটি তেলেভাজার দোকানে এক মানসিক ভারসাম্যহীনকে নিগৃহীত হতে দেখে তাঁকে বাড়িতে এনে তুলেছিলেন পেশায় তুঁত ফার্মের কর্মী মোসলেম মুন্সি। মানসিক ভারসাম্যহীনদের শুশ্রূষার সেই শুরু। দিনে…

আরও পড়ুন

বিজয়াদশমীর ভুরিভোজ : মোবি মিলসের হেঁশেল থেকে

রাজা মিত্র সকলকে জানাই বিজয়াদশমীর শুভেচ্ছা জানাই। ষষ্ঠী থেকে দশমী, প্রতিটি দিনের জন্য আলাদা আলাদা মেন কোর্সের সাজেশন দেওয়া হল, মোবি মিলসের পক্ষ থেকে। কিন্তু শুধু সেই খাদ্য তালিকাতে মন ভরবে না আপনাদের। আমাদেরও। তাই প্রতিদিনই থাকছে আমাদের একটি বা দুটি বিশেষ মেনু এবং তার রন্ধনপ্রণালী।   রসুন ভর্তা   কী কী লাগবে ১. বড়ো কোয়া রসুন – ১০-১২টি ২. পেঁয়াজ কুচো – আধ কাপ ৩. ধনেপাতা – ১ ছোটো আঁটি ৪. শুকনো লঙ্কা – ৪-৫টি ৫. সরষের তেল – ১ বড়ো চামচ ৬. নুন – স্বাদমতো   কী ভাবে বানাবেন ১. রসুন ছাড়িয়ে তেলে বাদামি করে ভেজে নিন। ২….

আরও পড়ুন

বঞ্চিত শিশুদের আনন্দে ভরিয়ে ‘সহমর্মী’র পুজো সফর

এ বারও ব্যত্যয় হয়নি। এটা তাদের বার্ষিক উৎসব যে। আর এই উৎসবের দিকেই তো তাকিয়ে থাকে গড়িয়া স্টেশন রোড সংলগ্ন এলাকার দুঃস্থ শিশুরা, যাদের অভিভাবকদের সারা জীবনটা দুঃসহ সংগ্রাম করতে করতে কেটে যায়। নিজেদের সন্তানদের মুখে একটু হাসি ফোটানো, একটু আনন্দ দেওয়ার অবকাশ তাঁদের কোথায়? সেই দায়িত্ব তুলে নিয়েছে ‘সহমর্মী’। ষষ্ঠীর সকালে খারাপ আবহাওয়া উপেক্ষা করেই ‘সহমর্মী’ যথারীতি পুজো পরিক্রমায় বেরিয়েছিল আনন্দ-বঞ্চিত সুখ-বঞ্চিত ৩৫টি শিশুকে নিয়ে, যাদের মধ্যে সবচেয়ে ছোটোটি রূপসা, বয়স পাঁচও হয়নি। এই শিশুদের ঠিকঠাক দেখভাল করার জন্য ছিলেন ‘সহমর্মী’র ১২ জন স্বেচ্ছাসেবকও। শিশুদের কপালে চন্দনের ফোঁটা দিয়ে অভ্যর্থনা করে সকাল সাড়ে ৯টায় শুরু হল যাত্রা। সঙ্গে থাকল…

আরও পড়ুন

আমার পুজো দেখা

দীপঙ্কর ঘোষ ষষ্ঠীর কলকাতা। শহর-ভাঙা জনস্রোত আলো আর গানে মণ্ডপে মপ্নদপে উপচে পড়েছে। পথের দু’পাশে বাতিস্তম্ভ নতুন সাজে সেজে ঘাড় বেঁকিয়ে গর্বিত ভাবে নতুন পোশাক-পরা জনতার চোখ ঝলসে দিচ্ছে। খালপারে আমার আড়াই তলার ছোট্ট একচিলতে বারান্দায় বসে আছি। দূরে ঝাপসা চাঁদ উঠেছে। মেঘেরা তার আলোটুকু চারপাশে ঘিরে আগলে রেখেছে। কানে আসছে ভেঁপুর আওয়াজ। ভাবছি প্রতিমা দেখতে বেরোবো কিনা। এমন সময় চোখ গেল পাশের ফ্ল্যাটের জানালায়। উচিত ছিল চোখ সরানো — পারলাম না। এক থুত্থুরে বুড়ি শুয়ে আছে একটা খাটে, শীর্ণ হাত-পা কাপড়ের বাঁধন না মেনে দৃশ্যমান। মিশরের মমির মতন পাশের চেয়ারে বসে প্রৌঢ় পুত্রবধূ – বাম হাতে তার রাতের খাবার,…

আরও পড়ুন

মহাসপ্তমীর কলকাতা : রাজীব বসুর লেন্সে

বাগবাজার সর্বজনীন দাঁ বাড়ির পুজো বাবুবাগান, ঢাকুরিয়া লেকটাউন প্রদীপ সংঘের আলোকসজ্জা সুরুচি সংঘ,  নিউ আলিপুর বালিগঞ্জ কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনে চক্ষুদান দেশপ্রিয় পার্কে দর্শকদের লাইন মুদিয়ালি ক্লাব, টালিগঞ্জ ঢাকুরিয়া শহিদনগর সর্বজনীন

আরও পড়ুন

মহানবমীর ভুরিভোজ : মোবি মিলসের হেঁশেল থেকে

রাজা মিত্র  ষষ্ঠী থেকে দশমী, প্রতিটি দিনের জন্য আলাদা আলাদা মেন কোর্সের সাজেশন থাকছে, মোবি মিলসের পক্ষ থেকে। কিন্তু শুধু সেই খাদ্য তালিকাতে মন ভরবে না আপনাদের। আমাদেরও। তাই প্রতিদিনই থাকছে আমাদের একটি বা দুটি বিশেষ মেনু এবং তার রন্ধনপ্রণালী।   রারা মাটন কী কী লাগবে ১. মাংস – ৪০০ গ্রাম, কারি কাট করা ২. কিমা – ১৫০ গ্রাম ৩. পেঁয়াজ – ১ বড়ো কাপ, কুচো করে কাটা ৪. টমেটো – ১ বড়ো কাপ, কুচো করে কাটা ৫. আদা – ১ বড়ো চামচ, বাটা ৬. রসুন – ২ বড়ো চামচ, বাটা ৭. কাজু – ১ বড়ো চামচ, সেদ্ধ করে বাটা…

আরও পড়ুন

নবপত্রিকা আদতে মা দুর্গারই একটি প্রতীক

পাপিয়া মিত্র নাতনির হাত ধরে ঠাম্মি দুর্গাঠাকুর দেখতে গিয়েছেন। ঠাম্মি না এক রত্তি নাতনি, কে যে কারও অভিভাবক ভাবা যায় না। অবশ্য ভাবার দরকার নেই। ঠাকুর দেখা নিয়ে কথা। কিন্তু ওই যে প্রশ্নের ঝাঁক। গণেশের পাশে ঘোমটা দেওয়া গাছটা কে? লক্ষ্মীর পেঁচা কেন চশমা পরে? কার্তিকের ময়ূর কেন নাচছে না? ঠাম্মি হয়রান। কিন্তু গণেশের পাশে ঘোমটা দেওয়া গাছটা কি গণেশের বৌ, এটা মোক্ষম প্রশ্ন। আর এই প্রশ্নের ঠিকঠাক উত্তর জানতে জানতে জীবনের এক বেলা কেটে গেল। আজ মহাসপ্তমী। স্নানের পর মণ্ডপে নবপত্রিকার প্রবেশ ঘটেছে। আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু হয়ে গেল দুর্গাপুজো। এই নবপত্রিকা নিয়ে তো কত ক্লাব কত সময় থিম করেছে।…

আরও পড়ুন