khabor online most powerful bengali news

অতীন্দ্রিয় উত্তরপূর্ব ১০: বৃষ্টির বাড়ি সোহরা

মৈত্রী মজুমদার ডাওকি থেকে ফেরার পথে ‘Y’ বাঁকের মুখে ঠিক করলাম চেরাপুঞ্জির দিকে ঘুরে যাই। এত সুন্দর মেঘলা দিনে যদি মেঘের দেশে নাই থাকি তবে আর কবে থাকব। আর বাদলঘন গহন দিনে পৃথিবীর সব থেকে বৃষ্টিসিক্ত জায়গায় থাকার সৌভাগ্যই বা ক’জনের হয়।  এখানে একটা কথা জানিয়ে রাখি। মেঘালয় মেঘের রাজ্য, তাই এখানে বেড়াতে আসার জন্য বর্ষাকালই সব থেকে উপযুক্ত সময়। যদিও বছরের বেশির ভাগ সময়ই এখানে বৃষ্টি হয়, তবুও আপনি-আমি তো আর এখানে রোজ রোজ আসব না। তাই কোনো রকম ঝুঁকি ছাড়া সব থেকে ভালো ভাবে মেঘালয় উপভোগ করতে হলে বৃষ্টি সুনিশ্চিত করতে হবে। আর তাই বর্ষাকালই ভরসা-কাল। ঘন সবুজ…

আরও পড়ুন

♦ রবিবার সকালে ভূমিকম্পে কাঁপল মেঘালয় ও তার আশপাশ

গুয়াহাটি : রবিবার সকাল ৭.২৭ মিনিটে মৃদু ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল মেঘালয় ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চল। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ছিল ৪.২। কোনো ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। রাজ্যের পশ্চিম খাসিপাহাড় জেলায় ভূকম্পন অনুভূত হয়। এর ঝটকা লাগে লাগোয়া খাসিপাহাড় জেলার চেরাপুঞ্জি-মৌসিনরামেও। এতে ঘুম উবে যায় নংনাহ, আওরো, নংলং, মারশিলং, রানিকর, বরসরা ইত্যাদি অঞ্চলের নাগরিককুলের। কম্বল-লেপ ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসার জন্য শুরু হয় হইহুল্লোড়। ভূকম্পের উত্‍সস্থল এখনও শনাক্ত করা যায়নি বলে প্রশাসন সূত্রের খবর। 

আরও পড়ুন

জঙ্গল কাটার জন্য দেশে কমছে বর্ষা, বলছে নতুন সমীক্ষা

মাত্রাতিরিক্ত জঙ্গল কেটে ফেলার জন্যই ভারতে বর্ষাকালে বৃষ্টির পরিমাণ ক্রমশ কমছে। এই ব্যাপারে সমীক্ষা করে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে পরিবেশ বিষয়ক অনলাইন পত্রিকা ‘নেচারডটকম’। সমীক্ষায় জানানো হয়েছে বেশ কয়েক দশক ধরে নির্মম ভাবে জঙ্গল কেটে ফেলা হচ্ছে। এর ফলে ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছে বর্ষা। মুম্বই আইআইটির সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক এবং সমীক্ষকদলের অন্যতম সদস্য সুবিমল ঘোষের কথায়, “বায়ুমণ্ডলের অনেকগুলো কারণ যেমন আছে তেমনই স্থানীয় কিছু কারণের ওপরও নির্ভরশীল বর্ষা। এই স্থানীয় কারণগুলি আমাদের হাতে। যেভাবে জঙ্গল কেটে চাষযোগ্য জমি বানিয়ে ফেলা হচ্ছে সেটা বর্ষার জন্য যথেষ্ট উদ্বেগের। আমরা একে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি”। সুবিমলবাবু বলেন, গত দু’তিন দশকে উত্তর ভারত আর উত্তর-পূর্ব…

আরও পড়ুন

বর্ষার খামখেয়ালিপনায় বানভাসি মধ্যপ্রদেশ, বৃষ্টিহীন চেরাপুঞ্জি

  শ্রয়ণ সেন রেকর্ড গড়ে ফেলল মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপাল। শুক্রবার ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে শনিবার ভোর সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত শহরে বৃষ্টি হয়েছে ২৯৭ মিমি। ভোপালের ইতিহাসে যা সর্বোচ্চ। শুধু ভোপাল নয়, গত চার-পাঁচ দিনে ব্যাপক বৃষ্টি হয়েছে রাজ্যের সাতনা, পাঁচমাড়ি, নরসিংহপুর, হোসাঙ্গাবাদেও। গত তিন দিনের চলা এই তুমুল বৃষ্টির ফলে বন্যার সম্মুখীন হয়েছে রাজ্যের ২৩টি জেলা। ইতিমধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ২০ জন। এর মধ্যে ভোপাল শহরে ৬ জন। বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে নর্মদা, মন্দাকিনী, সোন আর তামাস নদী। গোটা রাজ্যে বর্ষা এখন প্রায় ৮০ শতাংশের মতো বাড়তি। রেকর্ড গড়ে ফেলল চেরাপুঞ্জিও। বর্ষার মরসুমের দেড় মাস হতে চলল এখনও সে ভাবে বৃষ্টির…

আরও পড়ুন

দেশে বর্ষায় এক ডজন গন্তব্য: খবর অনলাইনের বাছাই

বেশির ভাগ মানুষের কাছে বর্ষাকালটা ঘুরে বেড়ানোর সময়ই নয়। চার দিকে জল-কাদা মাখামাখি, এর মধ্যে ঘোরা যায় না কী! কিন্তু বর্ষার সত্যিকারের রূপ যদি উপভোগ করতে হয়, তা হলে বাড়িতে না থেকে বেরিয়ে পড়ুন। খুব বেশি দিন নয়, দিন পাঁচেক থেকে এক সপ্তাহ ছুটি নিলেই ঘুরে আসা যায়, ভারতের এমন এক ডজন জায়গার সন্ধান দিচ্ছে খবর অনলাইন। জিম করবেট (উত্তরাখণ্ড) বন্যপ্রাণী যাঁরা ভালোবাসেন বর্ষায় তাঁদের আদর্শ গন্তব্য। পর্যটকদের ভিড় নেই। একটা গুজব খুব প্রচলিত। বর্ষায় বন্ধ থাকে জিম করবেট। না, তা নয়। ধিকালা, বিজরানি, দুর্গাদেবী আর ঝির্না – এই  চারটি জোনের মধ্যে ঝির্না সারা বছরই খোলা থাকে। আর কোশী নদীতে…

আরও পড়ুন