khabor online most powerful bengali news

লক্ষ্য নগদহীন অর্থনীতি, প্যান নম্বর ঘোষণা করার ঊর্ধ্বসীমা কমাতে পারে কেন্দ্র

নয়াদিল্লি: সঠিক পরিকাঠামোর অভাব, তবুও নগদহীন লেনদেনে উৎসাহ, থুড়ি বাধ্য করতেই হবে সাধারণ মানুষকে। সে কারণে আসন্ন বাজেটে চমকপ্রদ কিছু সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে পারে কেন্দ্র। যার মধ্যে অন্যতম তিরিশ হাজার টাকার লেনদেনেই প্যান নম্বর ঘোষণা করা বাধ্যতামূলক করা। এখনও পর্যন্ত পঞ্চাশ হাজার টাকার লেনদেনেই নিজের প্যান নম্বর ঘোষণা করতে হত কোনো ব্যক্তিকে। কেন্দ্রের মতে, সেই ঊর্ধ্বসীমা যদি তিরিশ হাজারে কমিয়ে নিয়ে আনা যায় তা হলে নগদহীন অর্থনীতির পথে আরও এক ধাপ এগোনো যাবে। ব্যবসায়িক লেনদেনের ক্ষেত্রেও প্যান নম্বর ঘোষণা করার ঊর্ধ্বসীমা কমিয়ে দেওয়ার চিন্তাভাবনা চলছে। এর পাশাপাশি একটি নির্দিষ্ট সংখ্যার নগদে লেনদেনের ক্ষেত্রে লেনদেন মূল্য বা ক্যাশ হ্যান্ডলিং চার্জও নেওয়া…

আরও পড়ুন

মনে হয় না ভারত সম্পূর্ণ নগদহীন হবে, বললেন এসবিআই চেয়ারপার্সন

নয়াদিল্লি: দেশকে সম্পূর্ণ ভাবে নগদহীন করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ বার তাঁর ঠিক উলটো দেশের বৃহত্তর রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান। দেশকে সম্পূর্ণভাবে নগদহীন করা যাবে না বলে একটি অনুষ্ঠানে মত প্রকাশ করলেন অরুন্ধতী ভট্টাচার্য। নোট বাতিল হওয়া ভালো না মন্দ, খুব কৌশলগত ভাবেই সেই প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান অরুন্ধতী। তিনি বলেন, “নোট বাতিল ভালো না মন্দ, সেটা সময়ই বলবে। তবে এটা ঠিক যে এই সিদ্ধান্তের ফলে ডিজিটাল লেনদেনের প্রতি আগ্রহ বেড়েছে।” এর পর ভারতের নগদহীন হওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, “ভারত সম্পূর্ণ ভাবে নগদহীন হবে সেটা আমি বিশ্বাস করি না। আমার মতে ভারত ‘কম-নগদের অর্থনীতি’ হবে। সেটা হওয়াই যুক্তিযুক্ত।” ভারতকে…

আরও পড়ুন

বাতিল নোটের ৯৭% ফিরল ব্যাঙ্কে, মানতে নারাজ আরবিআই

নয়াদিল্লি : পুরোনো ৫০০ আর ১০০০ টাকার নোট ব্যঙ্কে জমা দেওয়ার মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ৩০ ডিসেম্বর। ৯৭% বাতিল নোট জমা পড়েছে ব্যাঙ্কে। পরিসংখ্যানটা অবাক করার মতোই। প্রশ্ন উঠছে, কালো টাকার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর ‘সার্জিকাল স্ট্রাইক’ তবে কতটা সফল হল? রাতারাতি দেশ থেকে দুর্নীতি দূর করতে বাতিল করে দেওয়া হল ৮৬ শতাংশ নগদ। এটিএম-এর লাইনে দাঁড়িয়ে অথবা চিকিৎসার জন্য টাকা জোগাড় করতে না পেরে বলি হল শতাধিক প্রাণ। এ ছাড়া নাগরিকের নিত্যনতুন হয়রানি তো আছেই। ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তোলা এবং জমা দেওয়া নিয়ে প্রায় রোজই নিয়ম পালটেছে আরবিআই। বদলে শুধু কেন্দ্র থেকে মিলেছে ‘কষ্ট করলে কেষ্ট মিলবে’ গোছের সান্ত্বনা। আর এত…

আরও পড়ুন

পেটিএমে টাকা ট্রান্সফার বন্ধ করল এসবিআই

মুম্বই: বিমুদ্রাকরণের ঘোষণার পর থেকেই দেশকে কখনো ‘ক্যাশলেস’ কখনো ‘লেস ক্যাশ’ অর্থনীতির দিকে নিয়ে যাওয়ার স্বপক্ষে যুক্তি দিয়েই চলেছে কেন্দ্র। পুরোনো সংস্থাগুলির পাশাপাশি গত দেড় মাসেই দেশ জুড়ে জাল বিস্তার করেছে বেশ কিছু নতুন বেসরকারি ডিজিটাল পেমেন্ট সংস্থা। কিন্তু এসবের মাঝেই তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে পেটিএম ওয়ালেটে টাকা ট্রান্সফার করা বন্ধ করে দিল দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক। @theavinashrao “Add money” to PayTM using SBI Internet banking has been disabled by bank. We recommend using State Bank Buddy mobile(1/2) — State Bank of India (@TheOfficialSBI) December 24, 2016 এসবিআইয়ের টুইটার পেজে একটি পোস্টে উল্লেখ করা হয়েছে, এখন থেকে স্টেট ব্যাঙ্কের…

আরও পড়ুন

মোদীর নোট বাতিল নীতির তীব্র সমালোচনা দুই মার্কিন ম্যাগাজিনে

ওয়াশিংটন: ফোর্বস এবং ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল। দুটি অত্যন্ত জনপ্রিয় মার্কিন পত্রিকা। এবং দুটিই মুক্ত বাজার অর্থনীতির পৃষ্ঠপোষক। সম্প্রতি নরেন্দ্র মোদীর নোট বাতিল নীতির বিরুদ্ধে সরব হয়েছে দুটি সংস্থাই। দেশের নগদ অর্থনীতির শতকরা ৮৫ ভাগ বিমুদ্রাকরণের সিদ্ধান্তকে ‘অনৈতিক’ এবং ‘অসুস্থ’ বলে ব্যাখ্যা করেছে ওই দুই সংস্থা। ফোর্বস-এর এডিটর-ইন-চিফ স্টিভ ফোর্বসের মত, “ব্যক্তিগত জীবনে হস্তক্ষেপ করে মানুষের ওপর জোর করে সরকারের সিদ্ধান্তকে চাপিয়ে দেওয়াই এর মূল উদ্দেশ্য”। তিনি আরও বলেন, সরকার প্রত্যেকটা মানুষের জীবন নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে। ওয়ালস্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত হওয়া ‘ইন্ডিয়া’জ বিজারে ওয়ার অন ক্যাশ’ নিবন্ধেও কড়া সমালোচনা করা হয় ভারতের বিমুদ্রাকরণ নীতির। নিবন্ধে বলা হয়েছে, সরকারি আমলা এবং মন্ত্রীরা ইচ্ছেমতো ক্ষমতার…

আরও পড়ুন

সঙ্গী হারালেন মোদী, নোট বাতিল নিয়ে উলটো সুর চন্দ্রবাবুর

হায়দরাবাদ: পুরোপুরি পালটি খেয়ে গেলেন তিনি। নিজেই জানিয়েছিলেন সংবাদমাধ্যমকে, সরকারের বিমুদ্রাকরণ নীতি গ্রহণের পেছনে রয়েছে তাঁর অবদান। এ বার উলটো সুরে গাইলেন বিজেপির সহযোগী তেলেগু দেশম দলের নেতা চন্দ্রবাবু নাইডু। অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মঙ্গলবার বিজয়ওয়াড়ায় দলের এক অনুষ্ঠানে বলেন, নোট বাতিলের ফলে সাধারণ মানুষের যে পরিমাণ হয়রানি হচ্ছে, তা অবসানের কোনো চিহ্নই তিনি দেখতে পাচ্ছেন না। চন্দ্রবাবু বলেন, “বিমুদ্রাকরণ আমরা স্বেচ্ছায় করিনি, এটা হয়ে গেছে। নীতি ঘোষণার পর ৪০ দিন কেটে গেলেও আমাদের আপ্রাণ চেষ্টা সত্ত্বেও সংকটজনক পরিস্থিতি থেকে বেরোনোর কোনো সমাধান আমরা খুঁজে পাচ্ছি না।” সম্প্রতি দেশকে নগদহীন অর্থনীতির পথে ‘এগিয়ে’ নিয়ে যাওয়ার জন্য দেশের মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে গড়া কমিটির প্রধান…

আরও পড়ুন

নগদে লেনদেন ও নগদহীন ব্যবস্থা পাশাপাশি চলবে, বেসুরো অর্থমন্ত্রী

নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রী যখন সম্পূর্ণ নগদহীন অর্থনীতির পক্ষে সওয়াল করে চলেছেন, তখন তাঁর উল্টোপথে হাঁটলেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। বৃহস্পতিবার তিনি স্পষ্টই জানালেন, নগদহীন অর্থনীতি কখনোই নগদে লেনদেনের সম্পূর্ণ বিকল্প হতে পারে না। নগদে লেনদেন আর নগদহীন অর্থনীতি, দুটি ব্যবস্থাই সমান্তরাল পথে চলবে। অর্থ মন্ত্রকের অন্তর্গত পরামর্শদায়ক কমিটির মিটিং-এ জেটলি এ দিন বলেন, “নগদহীন ব্যবস্থা হচ্ছে আসলে কম নগদের অর্থনীতি, কারণ কোনো অর্থনীতিই সম্পূর্ণ ভাবে নগদহীন হতে পারে না।”  জেটলি এ দিন বলেন, কেন্দ্র আর রিজার্ভ ব্যাঙ্ক চেষ্টা করছে কী ভাবে ডিজিটাল লেনদেনের খরচা আরও কমানো যায়। তবে প্রধানমন্ত্রী নগদহীন অর্থনীতির বার্তা সাধারণ মানুষ স্বাগত জানিয়েছেন বলে জানান অর্থমন্ত্রী। নগদহীন ব্যবস্থায় সাইবার…

আরও পড়ুন

২০০০ টাকা পর্যন্ত কার্ডে কেনাকাটায় কোনো সার্ভিস ট্যাক্স নয়

নয়াদিল্লি : টাকা বাতিলের মাসপূর্তিতে ডিজিটাল লেনদেনে আগ্রহ বাড়াতে আরও এক পদক্ষেপ মোদী সরকারের। বৃহস্পতিবার থেকে কার্ডের মাধ্যমে ২০০০ টাকা পর্যন্ত কেনাকাটায় কোনো সার্ভিস ট্যাক্স লাগবে না। এত দিন পর্যন্ত এ ধরনের কেনাকাটায় ১৫ শতাংশ সার্ভিস ট্যাক্স লাগত। বৃহস্পতিবার থেকে ক্রেতাকে সেই ট্যাক্স দিতে হবে না। এক সরকারি আধিকারিক জানিয়েছেন,‘ডেবিট, ক্রেডিট বা অন্য কোনও কার্ডের মাধ্যমে ২০০০ টাকা পর্যন্ত একবার কেনাকাটায় কোনো সার্ভিস ট্র্যাক্স দিতে হবে না।’ এই বিজ্ঞপ্তিটি লোকসভায় পেশ করেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। আরও পড়ুন:  ২০০০টাকা পর্যন্ত অনলাইন লেদদেনে কোনও পিন নম্বর লাগবে না: রির্জাভ ব্যাঙ্ক এর এক সপ্তাহ আগে সরকার ব্যাঙ্কগুলিকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে…

আরও পড়ুন

‘সরকারি ই-ওয়ালেট’, ‘সরকারি পেটিএম’ চালু করার ভাবনা

গত বছর জুলাই মাসে মোদী সরকার সারা দেশ জুড়েই চালু করে ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’ প্রকল্প। সম্প্রতি, পুরোনো নোট বাতিলের যে সিদ্ধান্ত কেন্দ্র নিয়েছে, তার স্বপক্ষে যুক্তি দিতেও বারবার উঠে এসছে ওই প্রকল্পের প্রসঙ্গ। দেশের অর্থনীতিকে ‘ডিজিটালাইসড’ করার কথা ভাবছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই উদ্দেশ্যে ‘সরকারি ই-ওয়ালেট’ ও ‘সরকারি পেটিএম’ চালু করার দিকে এগোচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। ডিজিটাল লেনদেনের ক্ষেত্রে থাকছে না সার্ভিস চার্জ। শুক্রবার দৈনিক ভাস্করে প্রকাশিত হয়েছে এই খবর। আগামী ফেব্রুয়ারির সাধারণ বাজেটে এই প্রসঙ্গে বিস্তারিত ঘোষণা করার সম্ভাবনা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। ওই সংবাদপত্র সূত্রে খবর, দেশের গ্রামীণ অঞ্চলের মানুষের ব্যবহারোপযোগী স্মার্টফোন আনতে চলেছে সরকার, যেখানে আগে থেকেই ইনস্টল করা থাকবে ই-ওয়ালেট।…

আরও পড়ুন