khabor online most powerful bengali news

ব্যাঙ্কে ফেরা বাতিল নোট প্রসঙ্গে এখনও নীরব আরবিআই

নয়াদিল্লি: বিমুদ্রাকরণের পদ্ধতি শুরু হয়েছিল গত বছর জানুয়ারি থেকেই, সংসদের অর্থ সংক্রান্ত স্ট্যান্ডিং কমিটিকে জানালেন আরবিআই গভর্নর উর্জিত পটেল। গত সপ্তাহে স্ট্যান্ডিং কমিটিকে দেওয়া ৭ পৃষ্ঠার চিঠিতে উর্জিত জানিয়েছিলেন, ২০১৬-র ৭ নভেম্বর (কেন্দ্রের নোট বাতিলের ঘোষণার এক দিন আগে) কেন্দ্র থেকে বিমুদ্রাকরণের পরামর্শ দেওয়া হয় আরবিআইকে। তাঁর নিজেরই দেওয়া বয়ান থেকে বুধবার অনেকটাই সরে আসেন উর্জিত। এর আগে ২০১৪-র জানুয়ারিতে কেন্দ্রীয় সরকার কিছু সিরিজের ১০০০ টাকার নোট তুলে নেয় বাজার থেকে। সে কথাও প্যানেলকে জানান প্যাটেল। আরবিআই-এর ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, অর্থ মন্ত্রকের একাধিক আধিকারিককেও প্যানেলের নানা প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছিল। বাতিল হওয়া নোটের কত অংশ ফিরে এসেছে ব্যাঙ্কে, অথবা কত নতুন…

আরও পড়ুন

ব্যাঙ্কে ফিরেছে বাতিল নোটের ৯৭%, হিসেব মানতে নারাজ আরবিআই

মুম্বই: ব্লুমবার্গের রিপোর্টে প্রকাশিত হিসেব স্পষ্টই বলেছিল, নোট বাতিলের পর ব্যাঙ্কে ফিরে এসেছে ৯৭ শতাংশ পুরনো নোট। ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক স্বাভাবিক ভাবেই এই তথ্য অস্বীকার করেছিল। অথচ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নিজস্ব হিসেবও সেরকমই বলছে। বর্তমানে বাজারে মোট কত নোট চালু রয়েছে, তার সাপ্তাহিক ঘোষণায় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের দেওয়া তথ্য থেকেই পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে, নোট বাতিলের পর মাত্র ৫৪০০০ কোটি টাকা (বাতিল নোটের ৩ শতাংশ) ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে ব্যাঙ্কে ফেরেনি।বাজারে কত পরিমাণ নোট রয়েছে, সেই প্রসঙ্গে ১৯ ডিসেম্বরের পর আরবিআই আর কোনো বিবৃতি দেয়নি। তাই ধরে নিতে হবে ১৯ ডিসেম্বরের পর নতুন নোট ছাড়া হয়নি বাজারে, যা আদৌ বিশ্বাসযোগ্য নয়। অতএব বোঝাই যাচ্ছে, ব্যাঙ্কে না…

আরও পড়ুন

মানবপাচারে দু’ হাজারের নোট কাজে লাগানো হচ্ছে, হতাশ কৈলাস সত্যর্থী

বিদিশা (মধ্যপ্রদেশ) : নভেম্বরের ৮ তারিখে বিমুদ্রাকরণ সংক্রান্ত ঘোষণার পরের দিনই নোবেলজয়ী কৈলাস সত্যর্থী বলেছিলেন, উচ্চ মানের নোট বাতিলের ফলে শিশু পাচার কমবে। কিন্তু দু’ মাস পরে সেই একই মানুষ এ ব্যাপারে হতাশ। তিনি তাঁর মনের কথা গোপন করেননি। শিশুদের অধিকার নিয়ে সরব এই কর্মী বলেছেন, “মানব পাচারের যে র‍্যাকেট মূলত কালো টাকায় পরিচালিত হয়, আশা করেছিলাম বিমুদ্রাকরণের ফলে তা পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যাবে। কিন্তু এ ব্যাপারে তেমন কোনো উদ্যোগ চোখে পড়ছে না। বিমুদ্রাকরণ একটা রাস্তা বটে, তবে পাচার বন্ধে এটাই শেষ কথা নয়।” কৈলাশ সত্যর্থী তাঁর ‘বচপন বচাও আন্দোলন’-এর মাধ্যমে শিশু শ্রম ও শিশু পাচারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন।…

আরও পড়ুন

কালো টাকার বিরুদ্ধে লড়াইতে সমর্থন: প্রবাসী ভারতীয়দের
ধন্যবাদ মোদীর

বেঙ্গালুরু: ১৪ তম প্রবাসী ভারতী দিবসের মঞ্চ থেকে কালো টাকার ইস্যুতে ফের বিরোধীদের আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর কথায় “কালো অর্থনীতি ভারতীয় সমাজ ও রাজনীতিকে ভেতর থেকে নষ্ট করে দিচ্ছে”, অথচ “কালো টাকার রাজনৈতিক পূজারিরা” সরকারের কালো টাকা বিরোধী অবস্থানকে ‘জনবিরোধী’ তকমা দিচ্ছেন। এদিন বেঙ্গালুরুর সভায়, কালো টাকার বিরুদ্ধে লড়াইতে সরকারের পাশে থাকার জন্য প্রবাসী ভারতীয়দের ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রবাসী ভারতীয়রা প্রতি বছর দেশের অর্থনীতিতে ৬৯ বিলিয়ন ডলার যুক্ত করেন। “উন্নয়নের উদ্দেশে আমাদের যাত্রার মূল্যবান সঙ্গী” বলে প্রবাসীদের চিহ্নিত করেন মোদী। প্রবাসে তাদের অধিকার রক্ষায় সরকার সদা সচেষ্ট বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। এদিনের সভায় মোদী প্রবাসীদের অনুরোধ করেন,…

আরও পড়ুন

গরিবের কল্যাণের লক্ষ্যে নোট বাতিল এক সাহসী
পদক্ষেপ, বললেন মোদী

নয়াদিল্লি: বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বুঝিয়েই ছাড়বেন, নোট বাতিলের নীতি আসলে দেশের সাধারণ মানুষের ভবিষ্যতের কথা ভেবেই। বিজেপির জাতীয় কার্যনির্বাহী বৈঠকের শেষ দিনেও উচ্চারিত হল একই বাণী। গরিবের সেবা ঈশ্বর সেবার সমান, এই বার্তা দিয়েই নরেন্দ্র মোদী শেষ করলেন তাঁর শনিবারের ভাষণ। বললেন, তিনি ক্ষমতা চান না, চান মানুষের ভোগান্তি শেষ হোক।  শনিবার প্রধানমন্ত্রী বলেন, “কোথা থেকে বিজেপির টাকা আসছে, তা জানার অধিকার মানুষের আছে। রাজনৈতিক অনুদান সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয়ে স্বচ্ছতার দিক থেকে সবচেয়ে এগিয়ে থাকবে বিজেপিই।” দেশের পাঁচ রাজ্যের আসন্ন নির্বাচনে তাঁদের জয় সম্পর্কে তিনি নিশ্চিত এবং আত্মবিশ্বাসী, এমনটাই বলতে শোনা গেল মোদীকে। বললেন, “পরিস্থিতি আমাদের পক্ষেই…

আরও পড়ুন

বাতিল নোটের ৯৭% ফিরল ব্যাঙ্কে, মানতে নারাজ আরবিআই

নয়াদিল্লি : পুরোনো ৫০০ আর ১০০০ টাকার নোট ব্যঙ্কে জমা দেওয়ার মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ৩০ ডিসেম্বর। ৯৭% বাতিল নোট জমা পড়েছে ব্যাঙ্কে। পরিসংখ্যানটা অবাক করার মতোই। প্রশ্ন উঠছে, কালো টাকার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর ‘সার্জিকাল স্ট্রাইক’ তবে কতটা সফল হল? রাতারাতি দেশ থেকে দুর্নীতি দূর করতে বাতিল করে দেওয়া হল ৮৬ শতাংশ নগদ। এটিএম-এর লাইনে দাঁড়িয়ে অথবা চিকিৎসার জন্য টাকা জোগাড় করতে না পেরে বলি হল শতাধিক প্রাণ। এ ছাড়া নাগরিকের নিত্যনতুন হয়রানি তো আছেই। ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তোলা এবং জমা দেওয়া নিয়ে প্রায় রোজই নিয়ম পালটেছে আরবিআই। বদলে শুধু কেন্দ্র থেকে মিলেছে ‘কষ্ট করলে কেষ্ট মিলবে’ গোছের সান্ত্বনা। আর এত…

আরও পড়ুন

ব্যাঙ্কিং পরিষেবা কবে স্বাভাবিক হবে, জবাব দিলেন না মোদী

নয়াদিল্লি: কালো টাকা উদ্ধারের জন্য পুরোনো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে দেশবাসীর কাছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার জন্য ৫০ দিন সময় ছেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেটা ছিল ৮ নভেম্বর সন্ধ্যা। ৫৩ দিনের মাথায় ফের জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন মোদী। কিন্তু টাকা তোলার লাইন কবে শেষ হবে বা টাকা তোলার ঊর্ধ্বসীমা কবে দূর হবে, সে সব কোনো প্রশ্নেরই জবাব পেলেন না সাধারণ মানুষ। শুধু বললেন,  যতটা তাড়াতাড়ি সম্ভব পরিস্থিতি যাতে স্বাভাবিক হয়, সে ব্যাপারে সরকার সচেষ্ট এবং ব্যাঙ্কগুলিকে উদ্যোগী হতে বলেছেন। কালো টাকার বিরুদ্ধে দেশবাসী ৫০ দিন ধরে যে ‘আত্মত্যাগ’ স্বীকার করেছে এবং ‘ধৈর্যের’ পরিচয় দিয়েছে, সে জন্য তাদের বহুবার…

আরও পড়ুন

তামিলনাড়ুর মুখ্যসচিবের বাসভবন, অফিসে আয়কর হানা

চেন্নাই : দুর্নীতির অভিযোগে আয়কর দফতরের তদন্ত শাখার আধিকারিকরা বুধবার হানা দিলেন তামিলনাড়ুর মুখ্যসচিব পি রমা মোহন রাওয়ের বাসভবন ও সচিবালয়ে তাঁর অফিসে। মুখ্যসচিবের ছেলে, আত্মীয়স্বজন এবং তাঁর সহযোগীদের ১৩টি জায়গায়ও পৌঁছে যান আয়কর দফতরের প্রতিনিধিরা। চেন্নাই, বেঙ্গালুরু ও চিত্তুরে তাঁদের যে সব বাড়ি-অফিস রয়েছে সেখানে তল্লাশি চালান তাঁরা। এঁদের বিরুদ্ধেও দুর্নীতির অভিযোগ ছিল বলে আয়কর দফতর সূত্রে বলা হয়েছে।   আয়কর দফতর সূত্রে খবর, বুধবার ভোরবেলায় চেন্নাইয়ের আন্নানগরে মুখ্যসচিবের বাসভবনে পৌঁছে যান প্রায় ২০ জন আধিকারিক। বাসভবনের পাশাপাশি তাঁর কার্যালয়েও তল্লাশি চালানো হয়েছে। পি রমা মোহন রাও চলতি বছরের জুন মাসে মুখ্যসচিবের পদে নিযুক্ত হন। তামিলনাড়ুর সদ্যপ্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার…

আরও পড়ুন