khabor online most powerful bengali news

বিদায়লগ্নে পালেস্তাইনের জন্য অর্থসাহায্য করে গিয়েছেন ওবামা

ওয়াশিংটন: তাঁর ইজরায়েলপন্থী মনোভাবের কথা আগেই প্রকাশ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাই প্রেসিডেন্টের আসনে ট্রাম্প বসার আগেই প্যালেস্তাইনকে সাহায্যের জন্য আটকে থাকা অর্থ ছেড়ে দিয়ে গিয়েছেন বারাক ওবামা। পরিমাণটা ২২১ মিলিয়ন তথা ২২ কোটি ১০ লক্ষ ডলার।  মার্কিন কংগ্রেসের রিপাবলিকান সদস্যরা অবশ্য এই অর্থসাহায্য করার ব্যাপারে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। সাধারণত মার্কিন কংগ্রেসের মতামত মানা হয় কার্যনির্বাহী শাখায়, কিন্তু এর কোনো আইনি কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। এই আপত্তি মানা বা না-মানা সম্পূর্ণ প্রেসিডেন্টের এক্তিয়ারে পড়ে। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই এই অর্থসাহায্য ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট। প্যালেস্তিনীয় কর্তৃপক্ষ যুদ্ধবিধ্বস্ত ওয়েস্ট ব্যাঙ্ক আর গাজা স্ট্রিপে ত্রাণকাজ চালানোর জন্য এই অর্থ ব্যবহার করতে পারবে।…

আরও পড়ুন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হতে পারেন মহিলা, ইহুদি বা হিন্দু, বললেন ওবামা

ওয়াশিংটন: মেধার প্রতি রাষ্ট্র সম্মান দেখিয়ে গেলে আর সব মানুষের কাছে সমান সুযোগ পৌঁছে দিলে ভবিষ্যতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে মার্কিন মসনদে বসতে পারেন মহিলা, লাতিনো, ইহুদি এমনকি কোনো হিন্দু ব্যক্তিও। প্রেসিডেন্ট হিসেবে বিদায়ী সাংবাদিক সম্মেলনে এমনই বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি বলেন, “আমি আশাবাদী জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন এলাকা থেকে মেধাবীরা উঠে আসবেন, কারণ সেটাই যুক্তরাষ্ট্রের শক্তি।” মার্কিন ইতিহাসে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট ওবামা। এই পরিপ্রেক্ষিতেই সাংবাদিকরা যখন তাঁকে জিজ্ঞেস করেন, ভবিষ্যতে কী এ রকম আর দেখা যাবে, তখনই এই উত্তর দেন ওবামা। ভাবী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন নারী-বিরোধী, সংখ্যালঘু-বিরোধী, সমকামী-বিরোধী মন্তব্যের জন্য কুখ্যাত হয়েছেন সেই সময় ওবামার…

আরও পড়ুন

‘আসন্ন বিপদ’ থেকে সতর্ক করলেও, দেশ সম্পর্কে আশা প্রকাশ ওবামার

শিকাগো: আট বছর আগে প্রেসিডেন্টের মসনদ দখল করার সময়ে ওবামা বলেছিলেন “হ্যাঁ, আমরা পারব।” আট বছর পর বিদায়ী ভাষণে দেশবাসীকে বললেন “সতর্ক থাকুন, ভীত নয়”। তাঁর স্পষ্ট ইঙ্গিত ছিল ডোনাল্ড ট্রাম্পের দিকে। জাতিবাদ, আর্থিক অসাম্য, রাজনৈতিক বিচ্ছিনতা, মুসলিম ও নারী বিরোধী অবস্থান এবং ভোটারদের ঔদাসীন্য। তবে ওবামা আশাবাদী, চূড়ান্ত মতাদর্শগত বিভেদেও জনগণের সক্রিয়তা বিভেদকে দূর করতে পারে। তৈরি করতে পারে ‘সেতু’। তিনি বলেন “মার্কিন জনগণই পারেন বৈষম্যের বিরুদ্ধে যে সমস্ত আইন রয়েছে তাকে ‘তুলে ধরতে’। যে সমস্ত মূল্যবোধ আমাদের রয়েছে তাকে দুর্বল হতে না দেওয়া হবে আমাদের কাজ।” এক ঘণ্টার ভাষণে ওমাবা কখনও স্মৃতিচারণ করেন তাঁর রাজত্বকালের, কখনও বা করেন…

আরও পড়ুন

ওবামাকে চিঠি দিয়ে ট্রাম্পের মানসিক সুস্থতার পরীক্ষা চাইলেন বিশেষজ্ঞরা

ওয়াশিংটন: মানসিক ভাবে কি আদৌ সুস্থ ডোনাল্ড ট্রাম্প? যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত তিন জন বিখ্যাত মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের কথা শুনলে তা মনে হবে না। ট্রাম্পের মানসিক স্থিতিশীলতা নিয়ে এই তিন বিশেষজ্ঞ এতটাই চিন্তিত যে সে ব্যাপারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে চিঠিও দিয়েছেন তাঁরা। তবে এটাই প্রথম নয়। এর আগেও বেশ কয়েক বার ট্রাম্পের মানসিক স্থিতিশীলতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের অধ্যাপক জুডিথ হেরমান, অবসরপ্রাপ্ত সহ অধ্যাপক ন্যানেট গাট্রেল আর ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিটি হেলথ বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ডি মোশবাকের ওবামাকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন, ২০ জানুয়ারি মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার আগে যেন ট্রাম্পের সম্পূর্ণ শারীরিক আর মানসিক পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া হয়। মার্কিন…

আরও পড়ুন

মেরু সাগরে তেল তোলা নিষিদ্ধ করলেন ওবামা

নিউইয়র্ক:  তাঁর প্রেসিডেন্ট থাকার মেয়াদ আর একমাস। আর ঠিক এ রকম সময়য়েই উত্তর মেরু সাগর এবং দক্ষিণ মেরু সাগরে উপকূল থেকে দূরে তেল তোলা অনির্দিষ্ট কালের জন্য নিষিদ্ধ করে দিলেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওবামা। আগামী জানুয়ারিতেই ক্ষমতায় আসছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রবাল এবং জলজ প্রাণী সংরক্ষণের ১৯৫৩ সালে তৈরি হওয়া আইনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই ওবামার এই সিদ্ধান্ত। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে সরকারি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, মেরু প্রদেশে পরিবেশের ভারসাম্য এবং বাস্তুতন্ত্র সংরক্ষণের লক্ষ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং কানাডার প্রেসিডেন্ট ট্রুডো সহমত হয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ভাবী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইতিমধ্যেই বেশ কয়েক বার শিরোনামে এসেছেন তাঁর পরিবেশ ঔদাসিন্যের…

আরও পড়ুন