আন্তর্মহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র ‘অগ্নি-ফাইভ’-এর সফল উৎক্ষেপণ ভারতের

0
34

বালেশ্বর : ‘অগ্নি ফাইভ’ ব্যালিস্টিক মিসাইল এর সফল উৎক্ষেপন করল ভারত। সোমবার সকালে ওড়িশার আবদুল কালাম দ্বীপ থেকে এই ক্ষেপনাস্ত্রটির পরীক্ষামূলক ভাবে উৎক্ষেপন করা হয়। আইটিআর কমপ্লেক্স ফোরের মোবাইল লঞ্চার থেকে এর উৎক্ষেপণ করা হল। এটি সম্পূর্ণ ভারতীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ক্ষেপনাস্ত্র। ভারতের তৈরি অন্য সব ক’টি ক্ষেপনাস্ত্রের মধ্যে ‘অগ্নি ফাইভ’ সব চেয়ে বেশি দূরত্ব অতিক্রম করতে সক্ষম পরমাণু ক্ষেপনাস্ত্র। এ বার ছিল এটির চতুর্থ পরীক্ষা।

সূত্রের খবর, প্রথমে ঠিক হয়েছিল ২০১৭ সালের শুরুতে এই উৎক্ষেপণ করা হবে।

আন্তর্মহাদেশীয় এই ক্ষেপনাস্ত্রটি তৈরি করেছে ভারতের প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ণ সংস্থা (ডিফেন্স রিসার্চ অ্যন্ড ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন বা ডিআরডিও)। এতে অনেক নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে। এতে রয়েছে ‘রিড্যানডেন্ট নেভিগেশন সিস্টেম’ ও ‘মাইক্রো নেভিগেশন সিস্টেম’। যার ফলে এটি লক্ষ্যে স্থির থেকে আক্রমণ করতে পারবে। এছাড়াও এতে রয়েছে দ্রুতগতি সম্পন্ন অন বোর্ড কম্পিউটার ও ফল্ট টলারেন্স সফটওয়্যারও।

‘অগ্নি ফাইভ’-এর উচ্চতা ১৭ মিটার। এর ওজন ৫০ টন। এটি দেড় টন পরমাণু অস্ত্র বহন ক্ষম। ‘অগ্নি ফাইভ’ পাঁচ হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যে আক্রমণ করতে সক্ষম। এর অর্থ হল ভারত থেকে এটি পাকিস্তান, চিন সহ এশিয়ার যে কোনো জায়গায় হামলা করতে পারবে। হামলা চালাতে পারবে আফ্রিকা, ইউরোপেও।

এর আগে ২০১২,১৩ ও ১৫ সালে চার বার ‘অগ্নি’ মিসাইলের পরীক্ষা করা হয়। ‘অগ্নি-ওয়ান’ ৭০০ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রমে সক্ষম, ‘অগ্নি-টু’ সক্ষম দু’ হাজার কিলোমিটারে, ‘অগ্নি-থ্রি’ সক্ষম আড়াই হাজার আর ‘অগ্নি-ফোর’ সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার দূরত্বে আক্রমণ ক্ষম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here