‘আসন্ন বিপদ’ থেকে সতর্ক করলেও, দেশ সম্পর্কে আশা প্রকাশ ওবামার

0
42

শিকাগো: আট বছর আগে প্রেসিডেন্টের মসনদ দখল করার সময়ে ওবামা বলেছিলেন “হ্যাঁ, আমরা পারব।” আট বছর পর বিদায়ী ভাষণে দেশবাসীকে বললেন “সতর্ক থাকুন, ভীত নয়”। তাঁর স্পষ্ট ইঙ্গিত ছিল ডোনাল্ড ট্রাম্পের দিকে।

জাতিবাদ, আর্থিক অসাম্য, রাজনৈতিক বিচ্ছিনতা, মুসলিম ও নারী বিরোধী অবস্থান এবং ভোটারদের ঔদাসীন্য। তবে ওবামা আশাবাদী, চূড়ান্ত মতাদর্শগত বিভেদেও জনগণের সক্রিয়তা বিভেদকে দূর করতে পারে। তৈরি করতে পারে ‘সেতু’। তিনি বলেন “মার্কিন জনগণই পারেন বৈষম্যের বিরুদ্ধে যে সমস্ত আইন রয়েছে তাকে ‘তুলে ধরতে’। যে সমস্ত মূল্যবোধ আমাদের রয়েছে তাকে দুর্বল হতে না দেওয়া হবে আমাদের কাজ।” এক ঘণ্টার ভাষণে ওমাবা কখনও স্মৃতিচারণ করেন তাঁর রাজত্বকালের, কখনও বা করেন ছোটো ছোটো ব্যঙ্গক্তি। তবে ভাষণের আগাগোড়াই ছিল ‘সর্তকবার্তা’। ম্যাককরমিক প্যালেসের কনভেশন সেন্টারের বিশাল এক জনসমাগমের মধ্যে ওবামা বলেন, ‘‘আমাদের মতো দেখতে নয় বলে আমার যদি অভিবাসী শিশুদের উপর বিনিয়োগ করা বন্ধ করি, তবে আমরা আমাদের সন্তানদের উন্নতিকে হ্রাস করে ফেলব। কারণ আমেরিকার কর্মশক্তির একটি বড় অংশ ওই শিশুরাই।”

গণতন্ত্র রক্ষার্থে চারটি মূল দিকের কথা বলেন ওবামা। সবার জন্য অর্থনৈতিক সুযোগসুবিধা, কুসংস্কারের বিরুদ্ধে লড়াই, যুক্তিবাদী হওয়া এবং গণতান্ত্রিক অধিকারকে সম্মান করা।

বিদেশনীতি প্রসঙ্গেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট তাঁর বিদায়ী ভাষণে বলেন, ‘‘আইএস সাধারণ মানুষকে হত্যা করছে, কিন্তু তারা আমেরিকাকে পরাজিত করতে পারবে না, যদি না আমরা আমাদের সংবিধান ও সংগ্রামে আমাদের নীতির সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করি।’’

ভাষণ শেষে ওবামা বলেন, “যখন আমি দায়িত্ব নিয়েছিলাম তখনকার থেকে যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে আমি এখন অনেক বেশি  আশাবাদী।”

 

বিজ্ঞাপন

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here